নয়াদিল্লি: ভারতীয় মহিলা এবং পুরুষদের খাদ্যাভ্যাসের একটি তুলনামূলক সমীক্ষা প্রকাশ করেছে বেসরকারি সংগঠন ‘হেলদিফাইমি’। ১৫ লক্ষ ভারতীয়কে নিয়ে অনলাইনে চালানো হয়েছে সমীক্ষা। তার মধ্যে অর্ধেক মহিলা। ‘হেলদিফাইমি’-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আমরা নিয়মিত যে খাবার খাই, তাতে প্রোটিন, ফ্যাট এবং কার্বোহাইড্রেটের অনুপাত হওয়া উচিত ২০: ৩০: ৫০।

সমীক্ষা বলছে, ভারতীয় মহিলারা পুরুষদের তুলনায় ১৩ শতাংশ কম প্রোটিন যুক্ত খাবার খান। পুরুষ ও মহিলার খাদ্যাভ্যাসের এই বৈষম্য ভারতের সব অঞ্চলেই কম বেশি বিদ্যমান। তবে উত্তর ও উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোয় অর্থাৎ মণিপুর, অরুণাচল প্রদেশ, জম্মু কাশ্মীর, পঞ্জাবে এই বৈষম্য মারাত্মক রকমের।

protein

হেলদিফাইমি-এর সিইও তরুণ বশিষ্ঠ সমীক্ষা প্রসঙ্গে বলেছেন, “প্রোটিনের অভাব থেকে তৈরি হয় বিপাকজনিত সমস্যা, ক্লান্তি, মনঃসংযোগের অভাব। এ ছাড়া সার্বিক ভাবে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতাও কমে যায়। সেই দিক থেকে সমীক্ষায় উঠে আসা পরিসংখ্যান বেশ ভয়াবহ।”

প্রোটিনের অভাবে শরীরের পেশি ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ে। ফলে বাড়তে থাকে যখন তখন পড়ে যাওয়ার এবং হাড় ভাঙার প্রবণতা। আন্তর্জাতিক নারী দিবসে এই সমীক্ষা দেশের মহিলাদের স্বাস্থ্য সচেতনতা বাড়াতে কিছুটা হলেও সাহায্য করবে, আশাবাদী হেলদিফাইমি কর্তৃপক্ষ।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন