ঘুর পথে ভাড়া বাড়ানোর নানা রকম ফন্দিফিকির করছে কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রক। রাজধানী, শতাব্দী, দুরন্তয় ‘সার্জ প্রাইসিং’ চালু করেই থেমে থাকল না তারা, এ বার সাধারণ ট্রেনের থেকে বেশি ভাড়ায় পথে নামতে চলেছে রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভুর মস্তিস্কপ্রসূত ‘হামসফর’ এক্সপ্রেস।

রেল মন্ত্রক সূত্রে খবর, নতুন এই ট্রেনে শুধুমাত্র ‘থ্রি-টায়ার’ এসি কামরা থাকবে। কামরাগুলি অত্যাধুনিক মানের হবে। সিসিটিভি যেমন থাকবে তেমন থাকবে জিপিএস পরিষেবা। অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র যেমন থাকবে, তেমনই থাকবে মোবাইল আর ল্যাপটপের চার্জিং পয়েন্ট। থাকবে ‘মহারাজা এক্সপ্রেস’-এর মতো পরিবেশ।

রেলের একজন আধিকারিক বলেন, “যেহেতু এই অত্যাধুনিক কামরা তৈরি করতে অনেক খরচা হয়েছে রেলের, তাই ভাড়া বেশি হবেই”। যদিও ভাড়া কতটা বাড়বে সেই ব্যাপারে খোলসা করেননি তিনি। তাঁর কথায়, “ভাড়ার ব্যাপারে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি”। তবে তিনি ইঙ্গিত দেন, সাধারণ দূরপাল্লার ট্রেনের থেকে কুড়ি শতাংশ বেশি হতে পারে হামসফরের ভাড়া। এক রাতের যাত্রায় দুই শহরকে যোগ করবে এই হামসফর ট্রেন। অক্টোবরে দিল্লি আর গোরক্ষপুরের মধ্যে প্রথম যাত্রা করবে এই হামসফর।

কিছুদিন আগেই বিমানের মতো রাজধানী, শতাব্দী আর দুরন্তয় সার্জ প্রাইসিং-এর নিয়ম চালু করেছে। কিন্তু বিমানে সার্জ প্রাইসিং-এ একটি বিশেষ তত্ত্ব মেনে হয়। চাহিদা বেশি থাকলে বিমানের ভাড়া যেমন অস্বাভাবিক বেড়ে যায়, চাহিদা কমে গেলে ভাড়া কিন্তু কমেও যায়। ট্রেনের ক্ষেত্রে কিন্তু তা হবে না। চার মাস আগে টিকিট কাটার সময় যে দামে টিকিট পাওয়া যাবে, যাত্রার দিন এগিয়ে এলে ক্রমশ দাম বাড়বে, সে চাহিদা যতই কম হোক না কেন!

অত্যাধুনিক কামরা-সহ নতুন ট্রেন বাড়তি ভাড়ায় চালানো কি সত্যি ভারতের উন্নত রেলব্যবস্থার মাপকাঠি হতে পারে, যেখানে পূর্ব রেলের শিয়ালদহ শাখায় ত্রুটিপূর্ণ সিগন্যালিং ব্যবস্থার জন্য ট্রেন লেট নিত্য দিনের সমস্যা, যেখানে পর্যাপ্ত ট্রেনের অভাবে ছাত্রছাত্রীদের ট্রেনের মাথায় চেপে পরীক্ষা দিতে যেতে হয়, যেখানে একদিনের বৃষ্টিতে রেললাইনে জল জমে হাওড়া ডিভিশনে চার দিন ধরে ট্রেন চলাচল অনিয়মিত হয়ে পড়ে, যেখানে মাত্র সাড়ে তিনশো কিলোমিটার পাড়ি দিতে একটা জলের মালগাড়ির আঠারো ঘণ্টা লাগে, যেখানে বর্ষাকালে মুম্বইয়ে রেললাইনে জল জমা নিয়মিত সমস্যা, যেখানে কুয়াশার জন্য বছরের একটা দীর্ঘ সময়ে উত্তর ভারতে ট্রেন অস্বাভাবিক বিলম্বে চলে এবং যার জেরে গণ্ডায় গণ্ডায় ট্রেন বাতিল করতে হয় ?      

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here