তীব্র গরমের পূর্বাভাস মৌসম ভবনের, তবে গত বছরের চেয়ে কম

0
143

নয়াদিল্লি: ফেব্রুয়ারি পেরিয়ে সবে মার্চ পড়ল, কিন্তু এখনই ভারতের পশ্চিমাংশে নিজের রুদ্রমূর্তি দেখাতে শুরু করেছে সূর্যদেব। এরই মধ্যে একটি দুঃসংবাদ এল আবহাওয়া দফতর থেকে। তারা জানিয়ে দিল, আগামী তিন মাস তীব্র দহনজ্বালায় পড়তে হবে গোটা দেশের মানুষকে। তবে আশার কথা, গত বছরের গরমের রেকর্ড এ বছর ভাঙবে না। 

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি প্রেস বিবৃতিতে দিল্লির মৌসম ভবন জানিয়েছে, এ বছরের জানুয়ারি ছিল গত ১১৬ বছরের মধ্যে অষ্টম উষ্ণতম। গোটা দেশে স্বাভাবিকের থেকে গড়ে ০.৬৭ ডিগ্রি বেশি ছিল জানুয়ারির তাপমাত্রা। এর অন্যথা হবে না মার্চ থেকে মে মাসেও। জানা গিয়েছে, গরমের এই তিন মাস দেশ জুড়ে স্বাভাবিকের থেকে বেশি থাকবে তাপমাত্রা, এর বেশি প্রভাব পড়বে উত্তর-পশ্চিম ভারতে।

বিবৃতিতে মৌসম ভবন জানিয়েছে, “মার্চ থেকে মে মাসে গোটা দেশেই স্বাভাবিকের থেকে বেশি থাকবে তাপমাত্রা। এর মধ্যে উত্তর পশ্চিম ভারতে স্বাভাবিকের থেকে গড়ে এক ডিগ্রিরও বেশি থাকবে তাপমাত্রা। বাকি ভারতে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে গড়ে এক ডিগ্রি পর্যন্ত বেশি থাকতে পারে।” এর পাশাপাশি আবহাওয়া দফতর আরও জানিয়েছে যে চিরাচরিত ভাবে তাপপ্রবাহের কবলে পড়া অঞ্চলগুলিতে (পঞ্জাব, সমতল হিমাচল, সমতল উত্তরাখণ্ড, হরিয়ানা দিল্লি, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, ঝাড়খণ্ড, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাত, ছত্তীসগঢ়, মহারাষ্ট্র, ওড়িশা, তেলঙ্গানা এবং পশ্চিমবঙ্গের রাঢ়াংশ) আরও মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে তাপপ্রবাহ।

এখনই অবশ্য দেশের পশ্চিমাংশে আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাসের ইঙ্গিত দিতে শুরু করে দিয়েছে গ্রীষ্ম। তাপপ্রবাহের কবলে পড়েছে মহারাষ্ট্র, গোয়া এবং কর্নাটক। চল্লিশ ছাড়িয়েছে মহারাষ্ট্রের মরাঠাওয়াড় এবং বিদর্ভ অঞ্চলের তাপমাত্রা। মুম্বইয়ে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৯ ডিগ্রি, স্বাভাবিকের থেকে যা প্রায় ছ’ডিগ্রি বেশি। এখনই এরকম চলতে থাকলে ভরা গ্রীষ্মে কী হবে সেই নিয়েই চিন্তিত মুম্বইবাসীরা।

এরই মধ্যে অবশ্য একটি আশার কথা শোনা গিয়েছে। গত বছরের তুলনায় এ বারের গরমের দাপট কিছুটা কমই থাকবে। মৌসম ভবনের তথ্যের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে গত ১১৬ বছরে রেকর্ডে ভারতে সব থেকে উষ্ণ বছর ছিল ২০১৬। গড়ে স্বাভাবিকের থেকে ১.৪৩ ডিগ্রি বেশি ছিল পারদ। রাজস্থানের পালোদিতে ৫১ ডিগ্রি ছুঁয়েছিল তাপমাত্রা, অন্য দিকে চির বসন্তের শহরে বেঙ্গালুরুতেও তাপমাত্রা প্রায় চল্লিশের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছিল।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here