ঢাকার রেস্তোরাঁয় সন্ত্রাসের বলি ভারতীয় তরুণী তারিশি

0

খবর অনলাইন: গুলশনের হোলি আর্টিসান বেকারিতে জঙ্গি হামলার ঘটনায় প্রাণ গেল ভারতীয় কন্যা তারিশি জৈনের। রেস্তোরাঁয় সেনা অভিযান শেষে যে ২০ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়, তার মধ্যেই ছিল ১৯ বছরের তারিশির দেহ।

তারিশিদের আদি বাড়ি উত্তরপ্রদেশে। কিন্তু তার বাবা সঞ্জীব জৈন ঢাকায় কাপড়ের ব্যবসায়ী। তাই গত ১৫-২০ বছর ধরে তারিশির পরিবার ঢাকার বাসিন্দা। ঢাকার আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রাক্তন ছাত্রী তারিশি ঢাকায় স্কুলের পড়া শেষ করে বার্কলেতে ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ায় পড়ছিলেন। ছুটি কাটাতে ঢাকায় নিজেদের বাড়িতে এসেছিলেন।

তারিশির কাকা রাজীব জৈন শনিবার জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় তারিশি বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে গুলশনের রেস্তোরাঁয় জঙ্গিদের হাতে পণবন্দি হয়ে পড়েন। শেষ পর্যন্ত তাঁর আর মুক্তি পাওয়া হল না।

এই মুহূর্তে তারিশির বাবা-মায়ের পাশে থাকার জন্য তাঁর আত্মীয়স্বজনরা উত্তরপ্রদেশ থেকে ঢাকায় যাওয়ার চেষ্টা করছেন। এ ব্যাপারে তাঁরা বিদেশ মন্ত্রকের সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছেন।

এ দিকে তারিশির হত্যায় দুঃখ প্রকাশ করে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ টুইট করেন। তিনি বলেন, “ঢাকার রেস্তোরাঁয় পণবন্দি হয়ে জঙ্গিদের হাতে তারিশির মৃত্যুর খবরে আমি গভীর ভাবে মর্মাহত। তাঁর আত্মীয়স্বজনরা যাতে ভিসা পান, তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।”

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন