নিউইয়র্ক: ভারতীয়দের প্রতি জাতিবিদ্বেষী আচরণ কানসাসের মূল্যবোধের পরিচায়ক নয়। দক্ষিণ ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ার শ্রীনিবাস কুচিভোতলার হত্যা প্রসঙ্গে কানসাসের গভর্নর স্যাম ব্রাউনব্যাক জানালেন, তিনি লজ্জিত। কনসাল জেনারেল অনুপম রায় গভর্নরের এই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে। 

কানসাসের নেতারা বলেছেন, তাঁরা সব সময় ভারতীয় সম্প্রদায়ের পাশেই আছেন, দরকারে যথাসাধ্য সাহায্য করবেন। গভর্নর ব্রাউনব্যাক আরও বলেন, “কানসাসের মানুষের ভারতীয়দের প্রতি যথেষ্ট সম্মান রয়েছে।”

শ্রীনিবাসের হত্যাকারী অ্যাডাম পিউরিনটনকে থামাতে গিয়ে নিজে গুলিবিদ্ধ হন আর এক কানসাসবাসী আয়ান গ্রিলট। গ্রিলটের সঙ্গে দেখা করেন কনসাল জেনারেল। গ্রিলটের আরোগ্য কামনা করে টুইটও করেন বিদেশমন্ত্রী।

 

অন্য দিকে শ্রীনিবাস কুচিভোতলা হত্যাতেই থামেনি হিংসা। গত বৃহস্পতিবার খুন হয়েছেন সাউথ ক্যারোলিনার ল্যাঞ্চেস্টার অঞ্চলের ভারতীয় ব্যবসায়ী হরনিশ পটেল। মৃতের পরিবারকে শোকবার্তা পাঠিয়ে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ জানিয়েছেন হরনিশ হত্যাকাণ্ডের তদন্ত চলছে। ইতিমধ্যে বহু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উঠে এসেছে তদন্ত থেকে।

হরনিশ, কুচিভোতলার পর আর একটু হলেই বলি হতে পারতেন দীপ রাই। সিয়াটেলের কাছে হামলাকারীর গুলিতে জখম হয়েও বেঁচে যান শিখ যুবক দীপ। দীপের পরিবারের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে ভারতের বিদেশমন্ত্রক, বিদেশমন্ত্রী নিজেই জানিয়েছেন। 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন