ভয়াবহ পরিস্থিতি, পাক অধিকৃত কাশ্মীরে মৃত শতাধিক

0

ওয়েবডেস্ক: পাকিস্তান-অধিকৃত কাশ্মীরে ভয়াবহ পরিস্থিতি। গত কয়েক দিনের তুষারধসে সেখানে মৃত্যু হয়েছে ১০০-এরও বেশি মানুষের। তবে এরই মধ্যে একটা ভালো খবরও পাওয়া গিয়েছে। প্রায় ১৮ ঘণ্টা বরফের তলায় চাপা পড়ে থাকার পর উদ্ধার করা হয়েছে এক কিশোরীকে।

কাশ্মীরের এই অংশের নীলম উপত্যকার পরিস্থিতি সব থেকে ভয়াবহ। সোমবার থেকে তুষারধসের জন্য সেখানেই মৃত্যু হয়েছে ৭৪ জনের।

এই নীলম উপত্যকাতেই নিজের বাড়ির ভেতরে বরফের তলায় চাপা পড়ে গিয়েছিল সামিনা বিবি নামক এক কিশোরী।

মুজফ্‌ফরাবাদের এক হাসপাতালের বেডে শুয়ে সামিনা বলে, “কী ভাবে বেঁচে রয়েছি ভাবতে পারছি না। আমার বেঁচে থাকার কথাই তো ছিল না।”

সামিনা ভাগ্যবতী হলেও, এই তুষারধসে প্রাণ গিয়েছে তাঁর এক ভাই আর এক বোনের। সামিনাকেও উদ্ধারের আশা প্রায় ছেড়ে দিচ্ছিলেন তাঁরা, এমনই জানান তাঁর মা শেহনাজ। এখন অবশ্য নতুন ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে সামিনা। তাকে নিরাপদে উদ্ধার করার জন্য পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের প্রশাসনকে ধন্যবাদ দিচ্ছে সে।

আরও পড়ুন বর্ষার আগমন আর বিদায়ের নতুন সময়সূচি তৈরি করল ভূবিজ্ঞান মন্ত্রক

তবে এরই মধ্যে স্থানীয় প্রশাসনকে ভাবাচ্ছে আগামী দিনের পূর্বাভাস। অনেকের মতে, ২০০৫ সালের ভূমিকম্পের পর এই মাপের প্রাকৃতিক দুর্যোগ পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে হয়নি। ২০ তারিখ পর্যন্ত আরও একাধিক তুষারধসের আশঙ্কা করা হচ্ছে এই অঞ্চলে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.