অতিমারি স্প্যানিশ ফ্লু-কে হারিয়েছিলেন, এ বার করোনাকেও হারালেন ১০১ বছরের বৃদ্ধ

খবর অনলাইনডেস্ক: অতিমারি স্প্যানিশ ফ্লুয়ের (Spanish Flu) সময়ে জন্ম, অতিমারি করোনাভাইরাসের (Coronavirus) সময়ে তিনি প্রায় শেষ বয়সে। কিন্তু প্রথমটার মতো এটাকেও হেলায় হারিয়ে দিলেন ১০১ বছর বয়সি এক বৃদ্ধ।

করোনার বিরুদ্ধে এই বৃদ্ধের লড়াই বুঝিয়ে দিল বেশি বয়সেও এই রোগে আক্রান্ত হলেও ভয়ের কিছুই নেই। সুস্থ হয়েই বাড়ি ফেরা যায়। ইতালির (Italy) প্রশাসন এখন এই বৃদ্ধের কাহিনিকে অনুপ্রেরণা হিসেবে তুলে ধরতে চাইছে গোটা দেশের সামনে।

নিজেকে ‘মিস্টার পি’ হিসাবে পরিচয় দেন উত্তরপূর্ব ইতালির রিমিনির বাসিন্দা। গত শতকে যখন স্প্যানিশ ফ্লু-এর মতো অতিমারির দাপটে ত্রস্ত ইটালি-সহ গোটা বিশ্ব, সেই সময়ে জন্মেছিলেন তিনি। ১৯১৮ সালের জানুয়ারি থেকে ১৯২০-এর ডিসেম্বর পর্যন্ত, বছর দুয়েকের সেই অতিমারির দাপটে সংক্রমিত হয়েছিলেন ইটালি-সহ বিশ্বের প্রায় ৫০ কোটি মানুষ। তাতে মৃত্যু হয়েছিল প্রায় ৫ কোটি মানুষের। সেই অতিমারিকে হারিয়েছিলেন ‘মিস্টার পি’।

সপ্তাহ দুয়েক আগে কোভিড ১৯-এ (Covid 19) আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভরতি হন ‘মিস্টার পি’। বলাই বাহুল্য, এই বয়সে আক্রান্ত যখন হয়েছেন পরিজনেরা ধরেই নিয়েছিলেন বৃদ্ধা আর বাঁচবেন না। কিন্তু হাল ছাড়েননি চিকিৎসকরা।

আরও পড়ুন পরিযায়ী শ্রমিকদের ওপর জীবাণুনাশক স্প্রে? মহাবিতর্কে উত্তরপ্রদেশ সরকার

বেশ কিছু দিনের লড়াইয়ের পর করোনাকে হারিয়ে দেন ‘মিস্টার পি’। গত বৃহস্পতিবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন তিনি। এই ঘটনাকে অনুপ্রেরণা হিসেবে দেখতে চায় প্রশাসন। রিমিনি শহরের ডেপুটি মেয়র গ্লোরিয়া লিসি বলেছেন, “’মিস্টার পি জয়ী হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় পরিবারের লোকজন তাঁকে বাড়িতে নিয়ে গিয়েছেন। এই ঘটনা থেকেই শিক্ষা নেওয়া যায় যে, ১০১ বছর বয়স হলেও কারও সম্পর্কে কোনো ভবিষ্যদ্বাণী করা যায় না।’’

এই মুহূর্তে করোনাভাইরাসের দাপটে ইতালি পুরোপুরি ত্রস্ত। মৃতের সংখ্যা দশ হাজার পেরিয়েছে। আক্রান্তও প্রায় এক লক্ষ ছুঁতে চলল। তবে স্বস্তির খবর এই যে দিনের পর দিন নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কমছে। যদিও ইতালির প্রধানমন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন আরও বেশ কিছু দিন ঘরবন্দি হয়েই থাকতে হবে সাধারণ মানুষকে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.