পাকিস্তানে ট্রেনে ভয়াবহ আগুন, জীবন্ত দগ্ধ অসংখ্য

0
fire in tezgam exp
ছবি সৌজন্যে দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

ওয়েবডেস্ক: দাউদাউ করে জ্বলছে একাধিক কামরা। ভেতর থেকে ভেসে আসছে আর্তনাদ। প্রাণ বাঁচাতে জ্বলতে থাকা কামরা থেকেই চাষের জমিতে ঝাঁপ। ভয়াবহ এই ঘটনা ঘটেছে পাকিস্তানের লিয়াকতপুরে।

লাহোর থেকে করাচিগামী একটি ট্রেনে বিধ্বংসী আগুন লাগায় ঘটনাস্থলেই জীবন্ত দগ্ধ হয়েছেন কমপক্ষে ৬৫ জন। আহত হয়েছে ১৩ জন। তবে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

বৃহস্পতিবার ভোরে এই আগুন লাগে, পঞ্জাব প্রদেশের লিয়াকতপুরে। লাহোর থেকে যাত্রা শুরু করে করাচির দিকে যাচ্ছিল তেজগাম এক্সপ্রেস। পর পর তিনটে কামরায় ছড়িয়ে পড়ে আগুন।

আরও পড়ুন সর্দার পটেলের জন্মদিনে, ‘বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্য’র কথা স্মরণ করালেন মোদী

স্থানীয় সূত্রে খবর, প্রাতরাশের জন্য ট্রেনের মধ্যেই রান্না করছিলেন যাত্রীরা। তখনই আচমকা সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়। সেখান থেকেই পর পর তিনটে কামরায় লেগে যায় আগুন।

ঘটনা জানাজানি হতেই আশেপাশের এলাকা থেকে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন সাধারণ মানুষ। শেষ পাওয়া খবরে, আগুন এখনও জ্বলছে। তা নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে দমকল। ঘটনায় আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পাকিস্তানের মানবাধিকার দফতরের মন্ত্রী শিরিন মাজারি বলেন, দেশের সব থেকে পুরোনো ট্রেন এই তেজগাম এক্সপ্রেস। ট্রেনটি উত্তরের রাওয়ালপিণ্ডি থেকে দক্ষিণের করাচির মধ্যে যাতায়াত করে।

পাকিস্তানে ট্রেন দুর্ঘটনা আকছারই ঘটে। স্থানীয়দের অভিযোগ, লাগামহীন দুর্নীতির ফলে মানুষের ন্যূনতম চাহিদার দিকে কেউ নজরই দেয় না। তাই কোনো পরিকাঠামো উন্নয়নও হয় না।

গত বছর নির্বাচনে জিতে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সময়ে ইমরান খান আশ্বাস দিয়েছিলেন দেশের পরিকাঠামো উন্নয়নে বিশেষ নজর দেবেন তিনি। কিন্তু অর্থনৈতিক মন্দা চলতে থাকায় এখনও সে দিকে নজর দেওয়াই হয়নি তাঁর।

------------------------------------------------
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.