জাভা: কোনো রকম পূর্বাভাস ছাড়াই আগ্নেয়গিরি অগ্ন্যুৎপাত আর তার পরই সুনামি। শনিবার রাতে সুনামির জেরে ২২২ জন প্রাণ হারিয়েছেন ইন্দোনেশিয়ার জাভায় সুন্দা প্রণালীর পার্শ্ববর্তী উপকূলগুলিতে। আহতের সংখ্যা ৭৪৫। নিখোঁজ প্রায় ৩০ জন। দক্ষিণ সুমাত্রায় জলের তোড়ে ১২টি বাড়ি ভেঙে গিয়েছে। গোটা এলাকায় দুর্যোগ নেমে আসে স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ন’টা নাগাদ। জাতীয় বিপর্যয় সংস্থার মুখপাত্র সুতপ পুর্ব নুগ্রহ বলেন, আগ্নেয়গিরি ‘চাইল্ড’-এর অগ্ন্যুৎপাতের পরেই সুনামি আর তার পরই গোটা ঘটনাটি ঘটে যায়। সংস্থা খতিয়ে দেখছে ঠিক কী কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। বাড়তে পারে মৃতের সংখ্যা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই দুর্যোগের একটি ভিডিও পোস্ট হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে অচমকা একটি জলের স্রোত আছড়ে পড়েছে একটি অনুষ্ঠানের ওপর। সেখানে পপ গানের একটি কনসার্ট চলছিল। গান গাইছিল ‘সেভেনটিন’ নামের একটি ব্যান্ড। তারা জলের স্রোতে শ্রোতামণ্ডলীর দিকে ভেসে আসছে।

 java

জাভার বিখ্যাত ক্যারিটা সৈকতের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হয়েছে। বিভিন্ন ছবি ভিডিও থেকে এলাকার ধ্বংসাত্মক চেহারা ধরা পড়েছে। বহু গাছ শিকড় সমেত উপড়ে পড়েছে।

১৫ বছরের কিশোর সংবাদমাধ্যমকে তার অভিজ্ঞতা জানিয়েছে। ছুটি কাটানোর জন্য রাত ৯টায় এখানে আসে তারা। হঠাৎ করে জল আছড়ে পড়ে। সবটা কালো হয়ে যায়। বিদ্যুৎ সংযোগও ছিন্ন হয়ে যায়।

এখনও পর্যন্ত রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করা যাচ্ছে না।

২৩ বছরের এক জন জানিয়েছেন, সেই সময় তাঁর মোটরবাইকটাও চালু হচ্ছিল না। তাই সেটা ফেলে রেখেই দৌড়তে শুরু করেন। যতটা তাড়াতাড়ি যতটা দূরে যাওয়া যায় সেই চেষ্টা করতে থাকেন।

 java

বিশেষজ্ঞ মহল বলছে, পূর্ণিমা আর অগ্ন্যুৎপাতের ফলে জলের নীচের সৃষ্টি হওয়া ধ্বসের কারণে এক অস্বাভাবিক জোয়ার বা তরঙ্গের সৃষ্টি হয়েছে। তার থেকেই এই জলোচ্ছ্বাস। এই আগ্নেয়গিরির সঞ্চয় কার্যের ফলে সুমাত্রা আর জাভার মাঝে সুন্দা প্রণালীর ওপর এই ছোটো দ্বীপের সৃষ্টি হয়েছিল।

তবে কর্তৃপক্ষের দাবি, ঘটনাটি শুধুই জোয়ারের কারণে ঘটেছে। ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই।

আরও পড়ুন : বড়োদিনের আগেই শাটডাউন যুক্তরাষ্ট্র, বেতনহীন আট লক্ষ সরকারি কর্মী

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে একটি ভূমিকম্পের ফলে ভারত মহাসাগরে সৃষ্টি হয় সুনামি। তার জেরে ইন্দোনেশিয়ার ১ লক্ষ ৬৮ হাজার মানুষসহ প্রাণ হারায় মোট ২ লক্ষ ২০ হাজার জন।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন