‘বেপরোয়া, অবিবেচক ও দায়িত্বজ্ঞানহীন,’ পাকিস্তানকে তীব্র ধমক আফগানিস্তানের

0
ইমরান খান। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে তাদের জড়ানোয় পাকিস্তানকে তীব্র তোপ দাগল আফগানিস্তান। পাকিস্তানকে বেপরোয়া, অবিবেচক এবং দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে মন্তব্য করল তারা।

জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদার অনুচ্ছেদটি রদ করে দেওয়ার পর থেকেই নানা মহলের কাছে ভারতের বিরুদ্ধে আবেদন নিবাদন করছে পাকিস্তান। কিন্তু কোনো জায়গা থেকেই বিশেষ সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। এমনকি আফগানিস্তান তাস খেলার চেষ্টাও করেছিল ইমরান সরকার। তাদের দাবি ছিল কাশ্মীরের পরিস্থিতির জন্য আফগানিস্তানের শান্তিপ্রক্রিয়া ব্যাহত হতে পারে।

আফগানিস্তান এবং পাকিস্তানের মধ্যে সন্ত্রাসবাদীদের আনাগোনা রুখতে গত কয়েক বছর ধরে আফগান সীমান্তে বিপুল পরিমাণ বাহিনী মোতায়েন করে রেখেছে পাক সরকার। কাশ্মীর পরিস্থিতি সামাল দিতে সেই সেনা প্রত্যাহারেরই হুঁশিয়ারি দেয় পাকিস্তান। তাদের যুক্তি ছিল, এই মুহূর্তে জম্মু-কাশ্মীরের যা পরিস্থিতি, তাতে ভারত সীমান্তে সেনা মোতায়েন করতে হতে পারে তাদের। সে ক্ষেত্রে আফগান সীমান্তে মোতায়েন বিপুল সংখ্যক সেনা সরিয়ে নিতে হবে। তাতে আফগানিস্তানে শান্তি প্রক্রিয়া ব্যাহত হতে পারে।

আরও পড়ুন ‘মৃত’ ভেবে চিতাবাঘের সামনে ছবি তোলার হিড়িক, তার পর যা হল… দেখুন ভিডিও

এতেই বেজায় চটেছে আফগানিস্তান। এই প্রসঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত আফগানিস্তানের রাষ্ট্রদূত রোয়া রহমানি বলেন, ‘‘জম্মু-কাশ্মীর ভারত ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক বিষয়। ইচ্ছাকৃত ভাবে তার সঙ্গে আফগানিস্তানকে জড়াচ্ছে ইমরান খান সরকার। বেপরোয়া, অবিবেচক এবং দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো আচরণ করছে পাকিস্তান। অশান্তিতে আরও উসকানি দিচ্ছে।’’

তালিবান এবং অন্যান্য জঙ্গির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পাকিস্তান পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে বলে জানান রোয়া। তাঁর অভিযোগ, এই ব্যর্থতা ঢাকতেই আফগানিস্তান-তাস খেলছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের জমিতে বেড়ে ওঠা জঙ্গি শিবিরগুলি নিয়ে যে অভিযোগ ভারত বরাবর করে আসছে সেই একই অভিযোগ রোয়ারও। তাঁর দাবি, এই জঙ্গিদের বিরুদ্ধে পাকিস্তান সরকার ব্যবস্থা নিতে পারেনি বলেই আফগানিস্তানেও লাগাতার সন্ত্রাসবাদী হানা চলছে। আফগানিস্তানের স্থিতিশীলতা নষ্ট করার চেষ্টা করছে পাকিস্তান, এমনও অভিযোগ করেন তিনি।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.