ওয়েবডেস্ক: ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে নারীদের শৈল্পিক নগ্নতা নিয়ে সেন্সরশিপ আরোপ করেছিলেন এই দুই সামাজিক মাধ্যমের কর্তৃপক্ষ। এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদেই গত রবিবার নিউইয়র্কে ফেসবুকের কার্যালয়ের সামনে নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ জানান কয়েক ডজন মহিলা-পুরুষ। এর পরই সেন্সরশিপের বিষয়ে পুনর্বিবেচনার আশ্বাস দিলেন কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুক আশ্বস্ত করে জানায়, এ ব্যাপারে তারা ন্যাশনাল কোয়ালিশন এগেনস্ট সেন্সরশিপ (এনসিএসি) এবং অন্যান্য অংশীদারদের সঙ্গে আলোচনা করবে। উল্লেখ্য, ফোটোগ্রাফিক শৈল্পিক নগ্নতা অনুমোদন করার জন্য ফেসবুক এবং ইনস্টগ্রামের নীতি পরিবর্তন করার চ্যালেঞ্জ নিয়ে এনসিএসি গত এপ্রিল মাসে #উইদ্যনিপ্‌ল প্রচার চালু করেছে।

ফেসবুকের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সংস্থা ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারী বিভিন্ন গোষ্ঠীর কাছ থেকে এ ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ মতামত জানবে।

ফেসবুকের সিদ্ধান্ত জানার পরই এনসিএসি জানিয়েছেন, তারাও ফেসবুকের বিভিন্ন গোষ্ঠীর গুরুত্বপূর্ণ মতামত জানার নীতিতে যথেষ্ট আশাবাদী।

প্রসঙ্গত এনসিএসি’র প্রতিষ্ঠাতা ডন রবার্টসন আগেই জানিয়েছিলেন, নারীর শৈল্পিক নগ্ন ছবি পোস্ট করার পর তাদের গ্রুপটি সেন্সর করেছে ফেসবুক। বিশ্ব মাতৃ দিবসে একটি কবিতার সঙ্গে শৈল্পিক পেইন্টিং পোস্ট করার পরই ওই গ্রুপটিকে ‘অক্ষম’ করে দেয় ফেসবুক।

এর পরই ফেসবুককে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে কয়েক ডজন মহিলা প্রতিবাদকারী ফেসবুকের কার্যালয়ের সামনে নগ্ন হয়ে শুয়ে পড়েন। তাঁদের মহিলাদের গোপনাঙ্গ ঢেকে রাখা হলেও পুরুষদের স্তনবৃন্তগুলি উন্মুক্ত করে রাখা হয়। সঙ্গে তাঁদের হাতে ধরা ছিল স্তনবৃন্তের ছবি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here