‘পুরো যুক্তরাষ্ট্রই আয়ত্তের মধ্যে’, নতুন ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার পর হুংকার কিমের

0
791

পিয়ংইয়ং: ‘শত্রু’ দেশের পাশাপাশি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার বিরুদ্ধে বারবার তাদের সতর্ক করেছে ‘মিত্র’ দেশ চিনও। কিন্তু তাতেও দমানো যাচ্ছে না উত্তর কোরিয়াকে। আরও একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করল তারা। সব থেকে তাৎপর্যপূর্ণ হল এই পরীক্ষার পর সে দেশের সর্বেসর্বা কিম জন উনের যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে হুংকার।

শুক্রবার গভীর রাতে একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) পরীক্ষা করে উত্তর কোরিয়া। নিজেদের পরিচিত পথের বাইরে হেঁটে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জন্য রাতের অন্ধকারকেই বেছে নেয় তারা। এই প্রথম এক মাসেই দুটো ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করল তারা। জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে জানিয়েছেন, এই ক্ষেপণাস্ত্রটি তাদের সমুদ্র সীমায় পড়েছে।

সব থেকে উল্লেখযোগ্য ব্যাপার হল, এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাটি নিজে থেকে তদারকি করেছেন কিম। কিমকে উদ্ধৃত করে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বলেছে, “এই ক্ষেপণাস্ত্রটির সফল পরীক্ষার জন্য সন্তোষ প্রকাশ করেছেন আমাদের নেতা কিম জন উন।” সেই সঙ্গে ওই সংবাদমাধ্যম আরও জানিয়েছে, “নেতা জানিয়েছেন পুরো যুক্তরাষ্ট্র এখন আমাদের আয়ত্তের মধ্যে এসে গিয়েছে আর তার জন্য তিনি গর্বিত।”

পিয়ংইয়ং-এর দাবি এই ক্ষেপণাস্ত্রটি ৪৭ মিনিট আকাশে ওড়ে এবং ৩,৭২৪ কিলোমিটার উচ্চতা পর্যন্ত উঠতে পেরেছিল। ক্ষেপণাস্ত্রটির হওসং-১৪। গত ৩ জুলাই একই মডেলের একটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা করেছিল উত্তর কোরিয়া।

প্রত্যাশা মতোই এই পরীক্ষার পর উত্তর কোরিয়াকে বিষদগার করতে ছাড়েননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাকে ভয়াবহ এবং বেপরোয়া আখ্যা দিয়ে একটি বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেছেন, “বারবার এরকম পরীক্ষা করে উত্তর কোরিয়া নিজেদেরই আরও বিচ্ছিন্ন করে দিচ্ছে গোটা বিশ্বের থেকে। এর ফলে ওরা নিজেদের আরও দুর্বল করে ফেলছে এবং সাধারণ নাগরিককেও বঞ্চিত করছে।” এরপর ট্রাম্প আরও বলেন, “মার্কিন ভূমিকে সকল শত্রুর থেকে রক্ষা করার দায়িত্ব আমাদের। আমরা সেটা করব।”

সাধারণত নিজেদের দেশের ইতিহাসের কোনো উল্লেখযোগ্য দিনের কাছাকাছি কোনো দিনেই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে উত্তর কোরিয়া। এবারও সেই ‘ট্র্যাডিশন’ বজায় রাখল তারা। বৃহস্পতিবারই বিজয় দিবস পালন করেছে তারা। ১৯৫০-৫৩ কোরিয়ার যুদ্ধে নিজেদের জয় উদযাপনের জন্য এই বিজয় দিবস পালন করে পিয়ংইয়ং।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here