‘আয় আয় চাঁদমামা টি দিয়ে যা’ মায়ের ডাকে মামা এসে কপালে টিপ পরিয়েছে কত বার। তাই বলে কি সেই মামার বাড়ি যাওয়ার সাধ হয়নি কখনও? হয়েছে তো? কিন্তু সেই সাধ মিটেছে ক’জনার।

আবার প্রবাদ আছে ‘বামুন হয়ে চাঁদে হাত’। মানুষের জীবৎকালে কত ইচ্ছাই তো থাকে। তা কি আর বেঁচে থাকতে পূরণ হয়? হয় না। কিন্তু সেই ইচ্ছা তো মরণের পর পূরণ হতেই পারে। যেমন ধরুন চাঁদে পা রাখার স্বপ্ন। যে কেউ যখন তখন সেই স্বপ্ন দেখতেই পারেন। স্বপ্ন দেখতে তো আর ট্যাক্স লাগে না। কিন্তু গাঁটের  জোর থাকলে মৃত্যুর পর সেই স্বপ্ন পূরণ করার দায়িত্ব নিচ্ছে আমেরিকার একটি সংস্থা। ভারতীয় মালিকানায় এই সংস্থাটি মানুষের দেহভস্ম চাঁদে পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে।

সংস্থাটির নাম মুন এক্সপ্রেস। এরা মানুষের মৃত্যুর পর তাঁর অস্থিভস্ম দায়িত্ব সহকারে চাঁদে পৌঁছে দেবে। বিনিময়ে মৃত্যুর আগে তাদের দিয়ে যেতে হবে প্রতি কিলোগ্রাম অস্থিভস্মের জন্য ৩০ লক্ষ মার্কিন ডলার। মার্কিন ফেডারেল অ্যাভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এই সংস্থাটিকে লাইসেন্স দিয়েছে। তাতে ২০১৭ সালের মধ্যে মহাকাশযান নিয়ে চাঁদে অবতরণ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।  

নবীন জৈন নামের এক ভারতীয় এই সংস্থাটির কিছু অংশের মালিক। তিনি জানান, ইতিমধ্যেই বহু আগ্রহী মানুষ এই ব্যাপারে যোগাযোগ করেছেন তাঁদের সঙ্গে। 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here