তালিবানের হাতে নিহত আমরুল্লাহ সালহের দাদা, কবর দিতে না দেওয়ার অভিযোগ পরিবারের

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: তালিবানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধে নামা উত্তরের জোটের অন্যতম নেতা আমরুল্লা সালেহর দাদা রহুল্লা সালেহকে খুন করেছে তালিবান। এমনকি তাঁকে মেরে কবরও দিতে দেয়নি তালিবান বাহিনী। সংবাদ সংস্থাকে এমনটাই জানালেন সালেহ পরিবারের এক সদস্য।

রহুল্লার দেহ এখনও তালিবদের কব্জায় রয়েছে। দেহ ফিরিয়ে দেওয়ার আবেদন জানিয়ে সালেহ পরিবারের তরফে তালিবানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে, পরিবারের হাতে দেহ তুলে দেবে না। তালিবানের কথায়, ‘‘পচে যাক ওঁর দেহ।’’

পঞ্জশির উপত্যকার বিভিন্ন এলাকায় এখনও তালিবান ও উত্তরের জোটের মধ্যে সংঘর্ষ জারি রয়েছে। পঞ্জশিরের বিভিন্ন এলাকায় তালিব বাহিনী প্রবেশ করলেও এখনও হাল ছাড়েনি প্রতিরোধ বাহিনী। বৃহস্পতিবার রাতেও আমরুল্লার লোকজনের সঙ্গে তালিব যোদ্ধাদের গুলির লড়াই হয়েছে। ওই সময়ে পঞ্জশির ছেড়ে কাবুলে যাওয়ার পথেই তালিবানের আক্রমণে নিহত হন রহুল্লা।

এক আফগান সাংবাদিকও দাবি করেছেন, শারীরিক অত্যাচার চালানোর পর খুন করা হয় আমরুল্লা সালেহর দাদা রহুল্লাকে। তালিবান তাঁকে শুধু গুলি করে মারেনি, বন্দি করে অত্যাচার চালিয়েছিল।

Shyamsundar

গত সোমবার সকালে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, উত্তরের জোটের মুখপাত্র তথা মাসুদের সহযোগী ফাহিম দাস্তিকে খুন করেছে তালিবান বাহিনী। তালিবান মুখপাত্র জবিরুল্লা মুজাহিদ দাবি করেন, পঞ্জশিরে মাসুদের বাড়িও দখল নিয়েছেন তারা।

দাস্তি ছাড়াও পঞ্জশিরে সোমবার তালিব বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ে নিহত হয়েছেন মাসুদের আত্মীয় আমির সাহিব আহমেদ মাসুদ এবং উত্তরের জোটের অন্যতম কমান্ডার সাহিব আব্দুল ওয়াদুদ জোহর।

উল্লেখযোগ্য আরও এই খবরগুলি পড়তে পারেন

ভুল করে অন্য অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেললে কী ভাবে ফেরত পাবেন

এই সব অ্যাপ, সন্দেহজনক লিঙ্ক থেকে গ্রাহকদের দূরে থাকতে বলছে এসবিআই

ডিজি গোল্ড: অনলাইনে সোনা কেনাবেচা সহজ করে দিল সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস

৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে প্যান নম্বরের সঙ্গে আধার লিঙ্ক করতে বলল সেবি, নইলে…

সরকারি ই-কারেন্সি আর ক্রিপ্টোকারেন্সির তফাত অনেক, জেনে নিন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন