মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে জারি গ্রেফতারি পরোয়ানা ইরানে

0

তেহরান: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করল ইরান (Iran)। ইরানি সেনার জেনারেল কাসেম সোলেমানির হত্যার জন্য দায়ী করে ট্রাম্প-সহ ৩০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে তেহরানে।

গত জানুয়ারিতে ইরাকের বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ড্রোন হানায় মৃত্যু হয় ইরানি সেনার জেনারেল কাসেম সোলেমানির। প্রাণ হারান ইরাকের পার্লামেন্টারি বাহিনীর ডেপুটি চিফ আবু মেহদি অল মুহান্দিস’ও।

এই ঘটনার পর আরও তলানিতে চলে যায় ইরান-মার্কিন সম্পর্ক। পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

সোলেমানির হত্যার প্রতিশোধ নিতে ইরাকের মার্কিন সেনা ও যৌথ বাহিনীর ব্যবহৃত দুই ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় তেহরান। তাতে কমপক্ষে ৮০ জন ‘মার্কিন জঙ্গি’ নিহত হয়েছে বলে দাবি করেন ইরানের শীর্ষনেতা আয়াতোল্লা আলি খামেনেই।

ইরানের সংবাদমাধ্য়ম অনুযায়ী, ইরাকে মার্কিন সেনা ও যৌথ বাহিনীকে নিশানা করে মোট ১৫টি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছিল তারা। প্রসঙ্গত, সোলেমনি হত্যার পর পরই প্রকাশ্যে ইরানকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সোলেমানি হত্যার বদলা হিসেবে কোনো মার্কিন নাগরিক বা প্রতিষ্ঠানের উপর হামলা হলেই ইরানের আরও ৫২ জায়গায় আক্রমণ হবে জানিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন তিনি।

জানুয়ারির ওই হামলার পিছনে ট্রাম্প-সহ ৩০ জন জড়িত বলে দাবি করেছেন তেহরানের এক আইনজীবী। গ্রেফতারি পরোয়ানার ভিত্তিতে ইন্টারপোলের কাছেও নোটিশ পাঠিয়েছে ইরান। তবে ফ্রান্সের লিয়ঁতে ইন্টারপোলের সদর দফতরের তরফে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

স্বাভাবিক ভাবেই ট্রাম্পের গ্রেফতারির কোনো প্রশ্নই নেই। কিন্তু আলকাসিম নামক ওই আইনজীবী একটা মন্তব্য করেছেন যা খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। তিনি বলেন, “প্রেসিডেন্ট পদে ট্রাম্পের মেয়াদ শেষের পরও এই মামলা চলবে। ইরানও সহজে ভুলবে না।”

এই ব্যাপারে ট্রাম্প বা হোয়াইট হাউসের তরফে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন