man and horse

ওয়েবডেস্ক: সম্মতি থাকলে তো আর জোর-জবরদস্তির প্রশ্নই ওঠে না! এমনকি, ঘটনাটাকে তখন আর ধর্ষণ তো দূরে থাক, তকমা দেওয়া যায় না নির্যাতনেরও! সম্প্রতি কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে জজসাবেবকে তেমনটাই অন্তত জানালেন অস্ট্রেলিয়ার ড্যানিয়েল রেমন্ড ওয়েব জ্যাকসন!

জানা গিয়েছে, জ্যাকসনকে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের পুলিশ গ্রেফতার করে আদালতে তুলেছে ফিলি নামের একটি বছর দুইয়ের ঘোড়াকে ধর্ষণের অপরাধে! ফিলির মালিক জানিয়েছেন, মাঝ রাতে জ্যাকসন ঢুকে আসেন তাঁর খামারে। তার পর আস্তাবলে গিয়ে পর পর দু’বার যৌন নির্যাতন চালান ফিলির উপরে!

আরও পড়ুন: র‍্যাম্পে হাঁটতে হাঁটতেই শিশুকন্যাকে স্তন্যপান করালেন বিকিনি পরিহিতা মডেল, ভাইরাল ভিডিও

জ্যাকসন যদিও জানিয়েছেন, ফিলি ঘটনার আগে তাঁকে সম্মতি দিয়েছিল! “আমি যখন আস্তাবলে গিয়ে ওর সামনে দাঁড়াই, তখন ফিলি আমার ঊরুসন্ধির ঘ্রাণ নেয়। তার পরে চোখ মেরে আমায় সম্মতি দেয় মৈথুনে”, দাবি জ্যাকসনের!

জ্যাকসন যাই বলুন না কেন, ফিলির মালিক জানাচ্ছেন- ঘটনার পর থেকে সে আর স্বাভাবিক অবস্থায় নেই! তার ঘাড় সোজা হতে চাইছে না! তাই আপাতত ফিজিওথেরাপিস্ট দিয়ে তাকে সুস্থ করে তোলার চেষ্টা চলছে!

জানা গিয়েছে, ঘটনায় জজ ক্যারেন স্ট্যাফোর্ড ৪ মাসের প্যারোল-বর্জিত সাকুল্যে ১০ মাসের হাজতবাসের শাস্তি দিয়েছেন জ্যাকসনকে! সঙ্গে জরিমানা ধার্য করা হয়েছে ৭০০ অস্ট্রেলিয়ান ডলার!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here