shahjahan bachchu killed

ওয়েবডেস্ক: কোনো মানুষের পরিচয়ই কি তাঁর প্রাণের মতোই শিকার হওয়ার যোগ্য?

বাংলাদেশের প্রখ্যাত লেখক, প্রকাশক এবং কমিউনিস্ট পার্টির নেতা শাহজাহান বাচ্চুর নিহত হওয়ার পর তেমন প্ৰশ্নই উঠে আসছে। সমাজের বিভিন্ন স্তরের অধিকাংশ মানুষই এই ঘটনার নেপথ্যে দেখছেন কট্টরপন্থীদের হাত। ফ্যাসিবাদের ছোঁয়া যে এই মৃত্যুর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে, সে কথাও মানছেন অনেকে। এর আগেও দেখা গিয়েছে, বিরোধী মতের লড়াকুদের এ ভাবেই প্রাণ দিতে হয়েছে। সে শুধু বাংলাদেশ নয়, সারা বিশ্বেই নজির রয়েছে অসংখ্য। কিন্তু এর শিকড়ের সন্ধান করার প্রবণতা রয়েছে কি শাসকের, ফেসবুকে এমনই প্রশ্ন ছুড়ে দিচ্ছেন ‘মুক্তমনা’রা।

সোশ্যাল মিডিয়ার মারফত সুদূরের বাসিন্দারাও জেনে গিয়েছেন, বিশাখা প্রকাশনীর মালিক ৬০ বছরের বাচ্চু সরব ছিলেন ধর্মান্ধতা ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে। মূলত কবিতা প্রকাশই ছিল শাহজাহানের সংস্থার বিশেষত্ব। তাঁর ঘনিষ্ঠ তো বটেই, বাংলাদেশের বুদ্ধিজীবীরাও দাবি করেছেন, বাচ্চুর প্রকাশনী থেকে শুধুমাত্র কবিতার বই-ই প্রকাশিত হয়ে এসেছে এত দিন ধরে। সেখানে কবিতার জন্য তাঁর প্রাণ কেড়ে নেওয়ার উপযুক্ত পরিবেশ বা পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার নেপথ্যে রয়েছে অন্য কারণ?

সর্বশেষ পাওয়া খবরে জানা গিয়েছে, বাচ্চুর হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে সরকারি ভাবে দাবি করা হচ্ছে, জঙ্গি-যোগ থাকতে পারে। এ ব্যাপারে ঢাকার কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রাথমিক তদন্তও করেছে। তদন্তকারী দলের এক কর্তা জানিয়েছেন, এই হত্যাকাণ্ড জঙ্গি হামলা বলেই ধারণা করা হচ্ছে। তবে তিনিও নিশ্চিত হতে পারেননি।

আরও পড়ুন: কট্টরপন্থীদের হানায় বাংলাদেশে হত কমিউনিস্ট নেতা মুক্তমনা সাহিত্যিক শাহজাহান বাচ্চু

অন্য দিকে কারণ হিসাবে উঠে আসছে সেই ‘মুক্তমনা’দেরই উক্তি – কেউ লাভের জন্য খুন করে না, খুন করে খুনকে বৈধতা দেওয়ার জন্য। যে ভাবে ভারতে খুন হতে হয় কালবুর্গি বা গৌরী লঙ্কেশের মতো ভিন্ন ভাবনার মানুষদেরও। তবে তাঁদের খুনের নেপথ্যে সম্ভাব্য কারণ হিসাবে উঠে এসেছে নির্দিষ্ট ধর্মের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার বিষয়। এক জন যুক্তিবাদী লেখক অন্য জন সাংবাদিক। তাঁদের লেখনী হয়তো পেরে ওঠেনি তীব্র গতির বুলেটের বিপক্ষে। আর বাচ্চুর ক্ষেত্রে সারা জীবন কবিতার বই প্রকাশ করার ‘অপরাধ’-এর ‘পুরস্কার’ও হয়তো সেই বুলেট! কারণ তাঁর ক্ষেত্রেও সেই সরব হওয়ার বিষয়টাও ছিল সেই ধর্মকেন্দ্রিক। তাই বলে কি কলম থেমে থাকবে?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here