Connect with us

বিদেশ

নোবেল পুরস্কার নিতে যাবেন না ডিলান

নোবেল পুরস্কার নিতে সুইডেনে যাচ্ছেন না বব ডিলান। সুইডিশ অ্যাকাডেমির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, একটি ‘ব্যক্তিগত’ চিঠি দিয়ে ডিলান জানিয়েছেন, তাঁর ‘পূর্ব নির্ধারিত’ কর্মসূচি থাকায় আগামী মাসে নোবেল পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে যেতে পারছেন না। আগামী বছর জুন মাসের মধ্যে তাঁকে ‘নোবেল ভাষণ’ও দিতে হবে। তা-ও দেবেন কিনা চিঠিতে তার উল্লেখ করেননি ব্লোয়িং ইন দ্য উইন্ড-এর স্রষ্টা।

তবে নোবেল পুরস্কারের ইতিহাসে এই প্রথম নয়, এর আগে হ্যারল্ড পিন্টার, ডোরিস লেসিং যথাক্রমে ২০০৫ এবং ২০০৭ সালে পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে যাননি।

নোবেল কমিটি এখনও আশাবাদী পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে না এলেও ডিলান অন্তত ‘নোবেল ভাষণ’ দেবেন। কমিটির তরফে এক বিবৃতি দিয়ে এই আশা প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী ১০ ডিসেম্বর ডিলানের হাতে ওই পুরস্কার তুলে দেওয়ার কথা ছিল। অ্যালফ্রেড নোবেলের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ওই দিন পুরস্কার প্রাপকদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন :  নোবেলের পৃথিবীতে ডিলান নীরব, কিন্তু থামতে শেখেনি ‘ড্যাড রক’

গীতিকার হিসাবে মার্কিন সাহিত্যে অনবদ্য অবদানের জন্য তাঁকে এ বছর সাহিত্যে নোবেল দেয় কমিটি। এই ঘোষণার পর কোনও প্রতিক্রয়া দেননি। নীরবতা বজায় রেখেছিলেন ডিলান। নিজের ওয়েবসাইটে নোবেল পুরস্কার পাওয়ার কথা উল্লেখ করেও সরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। তাঁর নীরবতার কারণে নোবেল কমিটির এক সদস্য তাকে ‘অভদ্র ও উদ্ধত’ বলে ফেলেন। তার পর হঠাৎ নীরবতা ভেঙে ডিলান জানিয়ে দেন পুরস্কার পাওয়ার খবরে তিনি বাকরুদ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন। তখন কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে নোবেল কমিটি। কিন্তু আবার ডিলানের পুরস্কার নিতে না যাওয়ার ঘোষণা কমিটিকে ফের নতুন করে অস্বস্তিতে ফেলল।   

বিদেশ

কমদামী ও সহজলভ্য দুই ওষুধের সংমিশ্রণেই কমছে করোনার মারণ ক্ষমতা?

গবেষকরা ব্রাজিল, মিশর, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইরানের দু’জার করোনারোগীর ওপর সোফোসবুভির ও ডাকল্যাতাসভিরের প্রয়োগ করবেন।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস এখন আগের থেকে অনেক বেশি সংক্রামক হয়ে উঠেছে বলে মনে করা হচ্ছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড তৈরি করছে। কিন্তু এরই মধ্যে যে ব্যাপারটা নজর এড়িয়ে যাচ্ছে, তা হল মৃত্যুহার কমে যাওয়া। বেশ কয়েক মাস ধরেই মারণক্ষমতা কমছে করোনার। তার মূল কারণ, বিভিন্ন রকম ওষুধ প্রয়োগে সাফল্য আসা।

ঠিক এই পথেই আরও একটি স্বস্তিজনক দাবি করলেন ব্রিটেনের (UK) বিখ্যাত গবেষক ও অধ্যাপক অ্যান্ড্রু হিল (Andrew Hill)। তিনি জানিয়েছেন হেপাটাইটিস সি (Hepatitis C)-এর দুই ওষুধ সোফোসবুভির (Sofosbuvir) ও ডাকল্যাতাসভিরের (Daclatasvir) বিশেষ মিশ্রণ করোনার ক্ষেত্রে কার্যকর হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। লিভারপুল বিশ্ববিদ্যালয়ে এক সেমিনারে এ কথা বলেন তিনি।

উল্লেখ্য, এই দুই ওষুধই কম দামি আর বাজারেও তা সহজেই পাওয়া যায়।

হিল বলেন, “বিভিন্ন পরীক্ষানিরীক্ষা করে আমরা দেখেছি যে ডাকল্যাতাসভির করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে বেশ কার্যকর। ভাইরাসটি সব চেয়ে বেশি সংক্রমণ ঘটায় ফুসফুস ও শ্বাসনালিতে। এই ওষুধ সেখানে প্রবেশ করে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। সোফোসবুভিরও করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে, কিন্তু তা ডাকল্যাতাসভিরের তুলনায় কম কার্যকর।”

তবে এই ক্ষেত্রে এখনও বেশ কিছুটা গবেষণা চালিয়ে যেতে হবে বলে জানান হিল। তা পুরোপুরি সফল হলে করোনারোগীদের চিকিৎসায় এক নতুন দিগন্ত খুলে যাবে। হিল মনে করেন, বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে আগে থেকেই এই ওষুধ মজুদ থাকার ফলে, এর পেছনে বেশি খরচাও করতে হবে না।

ইরানের চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহায্যে সে দেশের ৬৬ জন করোনারোগীর ওপর একটি গবেষণা করেছেন। এর মধ্যে ৩৩ জনকে দেওয়া হয় সোফোসবুভির ও ডাকল্যাতাসভির। আর বাকি ৩৩ জনকে দেওয়া হয় ইরানি হাসপাতালে নির্ধারণ করে দেওয়া ওষুধ।

হিল বলেন, “সোফোসবুভির ও ডাকল্যাতাসভিরের প্রয়োগে আমরা অনেকটাই আশাপ্রদ ফল দেখেছি। ওষুধ প্রয়োগ শুরুর ১৪ দিন পর দেখলাম, ২৯ জন অর্থাৎ ৮৮ শতাংশ রোগী সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছেন।”

ইরানের এই গবেষণা সফল হওয়ায় এখন গবেষণার পরিধিটি আরও বাড়ানো হবে। পরবর্তী গবেষণার জন্য অধ্যাপক হিল ও তাঁর গবেষকরা ব্রাজিল, মিশর, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইরানের করোনারোগীদের ওপর সোফোসবুভির ও ডাকল্যাতাসভিরের প্রয়োগ করবেন।

Continue Reading

বিদেশ

রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়াল সফল, দাবি বিজ্ঞানীদের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: তা হলে কি বিশ্বের প্রথম করোনা টিকা রাশিয়ার (Russia) হাত ধরেই আসতে চলেছে? সে দেশের সেচনেভ বিশ্ববিদ্যালয়ের (Sechnov University) গবেষকরা যা দাবি করেছেন, তাতে সে রকমই একটি ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

গবেষকদের দাবি, মানবদেহে টিকা প্রয়োগের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে ফেলেছে তারা। প্রথম যে দলটির় উপরে পরীক্ষামূলক ভাবে টিকা প্রয়োগ করা হয়েছিল, তাঁরা আগামী বুধবার ছাড়া পাবেন। আর দ্বিতীয় দল ছাড়া পাবে ২০ জুলাই।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে বলা হয়েছে, কার্যকারিতার প্রশ্নে ওই টিকা ইতিবাচক ও নিরাপদ। খুব দ্রুত ওই টিকা বাজারে আনার কথাও ভাবছে তারা। 

সে দেশের সংবাদপত্র ‘স্পুটনিক’-এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে নলা হয়েছে যে গামালেই ইনস্টিটিটিউট অব এপিডেমোলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজি করোনার এই ভ্যাকসিনটি তৈরি করেছে।

গত ১৮ জুন সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হয়। বিশ্বের প্রথম প্রতিষ্ঠান হিসেবে তারাই স্বেচ্ছাসেবকদের উপরে এই টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করল বলে দাবি।

সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল প্যারাসাইটোলজি, ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ভেক্টর বর্ন ডিজিসেস-এর ডিরেক্টর অ্যালেক্সজান্দ্রা লুকাসেভ জানিয়েছেন, “ট্রায়ালের এই পর্যায়ের মূল লক্ষ্য ছিল মানবশরীরে এই ভ্যাকসিন কতটা নিরাপদ তা খতিয়ে দেখা। এই পরীক্ষা সাফল্যের সঙ্গে শেষ হয়েছে।”

উল্লেখ্য, রাশিয়া ছাড়া এই মুহূর্তে টিকা তৈরির তৃতীয় অর্থাৎ শেষ ধাপে রয়েছে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও ব্রিটিশ-সুইডিশ সংস্থা অ্যাস্ট্রাজেনেকা। তবে তাদের দাবি, অক্টোবরের আগে বাজারে ওই টিকা ছাড়া সম্ভব নয়। ফলে ভারতের হাতে সেই টিকা আসতে আসতে ২০২১-এর জানুয়ারি হয়ে যাবে।

টিকা-যুদ্ধে সর্বপ্রথম জয় কার হয় এখন সেটাই দেখার।

Continue Reading

বিদেশ

এই প্রথম মাস্ক পরে জনসমক্ষে এলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

ওয়াল্টার রিড মিলিটারি হাসপাতালের করিডোর দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় ট্রাম্পের মুখে একটি কালো রঙের মাস্ক দেখা যায়।

ওয়েবডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড (Donald Trump) ট্রাম্প শনিবার এই প্রথমবার জনসমক্ষে ফেস মাস্ক (Face mask) পরে দেখা দিলেন। আমেরিকা জুড়ে করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণ নিয়ে জনস্বাস্থ্যের বিষয়ে তীব্র চাপের মুখে পড়েছেন ট্রাম্প। এর আগে মাস্ক না পরার কথা জোরের সঙ্গে দাবি করেছিলেন ট্রাম্প।

ওয়াশিংটনের বাইরে ওয়াল্টার রিড মিলিটারি হাসপাতালের করিডোর দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় ট্রাম্পের মুখে একটি কালো রঙের মাস্ক দেখা যায়।

এত দিন পর মাস্ক পরার কারণ হিসাবে ট্রাম্প বলেন, “আমি কখনোই মাস্কের বিরুদ্ধে ছিলাম না। তবে আমি বিশ্বাস করি এটি ব্যবহারে নির্দিষ্ট সময় এবং জায়গা রয়েছে।”

সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে অবশ্য এমনটা বলা হয়েছে, এর আগে মাস্ক পরার বিষয়ে নিজের অনীহার কথা জানিয়েও বর্তমান পরিস্থিতিতে নিজের অবস্থান থেকে একশো আশি ডিগ্রি ঘুরেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। নভেম্বরের নির্বাচনের আগে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বিডেনকে নাম না করেই এ বিষয়ে কটাক্ষের পর সংবাদ মাধ্যমে নিজের মাস্ক পরা মুখের ছবি তুলে ধরতেই এমন পদক্ষেপ নিতে পারেন।

তবে আগের মতোই ট্রাম্প দাবি করেছেন, কোভিড-১৯ মহামারি (Covid-19 pandemic) ব্যবস্থাপনায় তাঁর প্রশাসন দৃঢ়তার সঙ্গে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। আমেরিকা বিশ্বের সব থেকে বেশি সংক্রামিত দেশ। কয়েক দিন ধরে চব্বিশ ঘণ্টায় ৬০ হাজারের বেশি আক্রান্তকে শনাক্ত করা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত প্রায় ১ লক্ষ ৩৫ হাজার করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে।

আগে যা বলেছিলেন ট্রাম্প

এর আগে গত মে মাসে ট্রাম্প জানিয়ে দিয়েছিলেন, তিনি মাস্ক পরবেন না। তার আগেই অবশ্য আমেরিকার সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি) করোনা প্রতিরোধে মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছিল।

তবে ট্রাম্প স্পষ্টতই জানিয়ে দেন, কেউ মাস্ক পরবেন কি না, “সেটা তাঁর ব্যক্তিগত বিষয়। মাস্ক পরার মাধ্যমে আমি সংবাদ মাধ্যমকে আনন্দ দিতে চাই না”।

ওই সময় মিশিগানে একটি কারখানা পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের কাছে বলেন, “ক্যামেরার সামনে আসার আগে আমি মাস্ক খুলে ফেলেছি”। পাশাপাশি তিনি অভিযোগ করেন, কিছু মানুষ তাঁর বিরুদ্ধে রাজনীতি করতেই মাস্ক পরছেন। সে ক্ষেত্রে তিনি যে বিডেনকেই নিশানা করেছিলেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে কি!

Continue Reading
Advertisement
cbse class X result
দেশ14 mins ago

সিবিএসইর দ্বাদশ শ্রেণির ফলাফল প্রকাশিত, নেই মেধাতালিকা

দেশ29 mins ago

শক্তিপ্রদর্শন গহলৌত শিবিরের, বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার প্রস্তাব

football2
ফুটবল6 hours ago

কোভিড-পরিস্থিতিতে আসন্ন আই লিগের সব ম্যাচই কলকাতায় করার ভাবনা

দেশ6 hours ago

বিজেপিতে যাচ্ছি না, বললেন সচিন পায়লট

দেশ6 hours ago

প্রবল বর্ষণে সিকিমে ভয়াল রূপ তিস্তার, হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ল প্রাক্তন সাংসদের বাড়ি

উঃ দিনাজপুর7 hours ago

বিজেপি বিধায়কের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, পরিবারের দাবি খুন

রাজ্য7 hours ago

উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির দাপট কিছুটা কমলেও স্বস্তি দিচ্ছে না আগামী তিন দিনের পূর্বাভাস

দেশ8 hours ago

দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড, তবে মৃত্যুহারে উল্লেখযোগ্য পতন

দেশ8 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৮৭০১, সুস্থ ১৮৮৪৯

দুর্গা পার্বণ2 days ago

আজও ভিয়েন বসিয়ে হরেক রকম মিষ্টি তৈরি হয় চুঁচড়ার আঢ্যবাড়ির দুর্গাপুজোয়

ফুটবল3 days ago

এটিকে-মোহনবাগানের নতুন লোগো প্রকাশিত, জার্সির রঙ সবুজমেরুনই

কলকাতা2 days ago

সক্রিয় রোগীর নিরিখে এই মুহূর্তে কলকাতার অবস্থান কত নম্বরে?

দেশ3 days ago

শারীরিক দুরত্ব ভেঙে মানবিক দায়িত্ব পালন

Shaktikanta Das
দেশ2 days ago

কোভিড-১৯ স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির সামনে শেষ একশো বছরের সব থেকে বড়ো সংকট: আরবিআই গভর্নর

রাজ্য3 days ago

ফের রেকর্ড সংক্রমণ রাজ্যে, তবে কমছে মৃত্যুহার, করোনামুক্ত ঝাড়গ্রাম

শিল্প-বাণিজ্য3 days ago

পকেটের ভারে ওয়ারেন বাফেটকেও টেক্কা দিলেন মুকেশ অম্বানি!

কেনাকাটা

কেনাকাটা23 hours ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা4 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা6 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা7 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

নজরে