Connect with us

বিদেশ

ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বিরোধ মেটাতে ট্রাম্পের প্রস্তাব খারিজ চিনের

ওয়েবডেস্ক: ভারতের সঙ্গে সীমানা বিরোধ নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) মধ্যস্থতার প্রস্তাব খারিজ করে দিল চিন। যুক্তি হিসাবে বলা হয়েছে, দু’টি দেশের মধ্যে এ ধরনের কোনো সমস্যায় তৃতীয় পক্ষের মধ্যস্থতার কোনো প্রয়োজন নেই।

আগ বাড়িয়ে ট্রাম্পের প্রস্তাব

ভারত-চিন (India-China) সীমান্তে বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরেই দু’দেশের সেনা বাহিনীর মধ্যে সংঘাতের খবর পাওয়া গিয়েছে। পরিস্থিতি এতটাই ঘোরালো যে, যুদ্ধ বাঁধার পরিস্থিতি তৈরি হয়ে যায়। এহেন পরিস্থিতিতে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত বৃহস্পতিবার টুইটারে লিখেছিলেন, “ভারত-চিন সীমান্ত সমস্যা সমাধানে আমেরিকা মধ্যস্থতা করতে প্রস্তুত এবং সক্ষম”। তবে এই প্রথমবার নয়, এর আগে কাশ্মীর নিয়ে ভারত-পাকিস্তান দ্বন্দ্বেও ট্রাম্প আগ বাড়িয়ে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। যদিও তা কানে আসা মাত্রই ভারতের তরফে খারিজ করে দেওয়া হয়।

চিনের জবাব

আমেরিকার প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে প্রস্তাব উড়ে আসার পর চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান শুক্রবার বলেন, “বর্তমান সেনা-সংঘাত নিয়ে দুই দেশই তৃতীয় কোনো দেশের মধ্যস্থতার রাজি নয়”।

তিনি বলেন, “চিনা এবং ভারতীয় সেনার মধ্যে বর্তমান বিরোধের অবসানে আমরা নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া অনুসরণ করে এগোচ্ছি। আমাদের যোগাযোগের মাধ্যমও রয়েছে”।

ভারতের ভাষ্য

গত বুধবারই ভারতের তরফে জানানো হয়েছে, চিনের সঙ্গে সীমান্ত বিরোধ শান্তিপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান করা হচ্ছে। একই সঙ্গে সূত্রের খবর, চিনা সেনার গতিবিধি লক্ষ্য করেই ভারতও নির্দিষ্ট কয়েকটি এলাকায় সেনা সংখ্যা বৃদ্ধি করছে। এ ব্যাপারে তিন বাহিনী এবং এনএসএ প্রধান এবং চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াতের সঙ্গেও বৈঠকে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আমেরিকার ভোট এবং ট্রাম্পের অভিযোগ

আগামী নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে চিন তাঁকে হারানোর জন্য উঠেপড়ে লেগেছে বলেও অভিযোগ করেন ট্রাম্প। এ ভাবেই দিন যত গড়িয়েছে, করোনাভাইরাস (Coronavirus) প্রাদুর্ভাব নিয়ে চিনের বিরুদ্ধে আক্রমণ ততই শাণিত করেছেন তিনি। গত বৃহস্পতিবারই একটি টুইটে ট্রাম্প জানান,“সারা বিশ্বে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে। চিন থেকে একটি খুব খারাপ উপহার। মোটেই ভালো না”। এর আগে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, কোভিড-১৯ মহামারি (Covid-19 pandemic) ছড়ানোর জন্য চিন কতটা দায়ী, সে বিষয়ে তদন্ত করবে আমেরিকা।

বিদেশ

মধ্য-আগস্টেই বাজারে আসতে পারে করোনার ভ্যাকসিন, দাবি রাশিয়ার

খবরঅনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাসের (Coronavirus) ভ্যাকসিন নিয়ে গোটা বিশ্বের বিজ্ঞানীরা লড়ে যাচ্ছেন। কে আগে ভ্যাকসিন বাজারে আনবে, সেই নিয়ে অলিখিত প্রতিযোগিতাও শুরু হয়ে গিয়েছে। এরই মধ্যে রাশিয়া (Russia) দাবি করেছে, মধ্য আগস্টের মধ্যেই বিশ্বের প্রথম করোনাভাইরাস-প্রতিরোধী টিকাকে তারা বাজারে আনতে পারবে।

রবিবার রাশিয়ার সেচনেভ বিশ্ববিদ্যালয়ের (Sechnov University) গবেষকরা দাবি করেন যে মানবদেহে করোনার টিকা প্রয়োগের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে ফেলেছে তারা।

প্রথম যে দলটির় উপরে পরীক্ষামূলক ভাবে টিকা প্রয়োগ করা হয়েছিল, তাঁরা আগামী বুধবার ছাড়া পাবেন। আর দ্বিতীয় দল ছাড়া পাবে ২০ জুলাই।

মস্কো টাইমসের রিপোর্ট অনুযায়ী সেচনেভ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি একই টিকা গামালেই ন্যাশনাল রিসার্চ সেন্টার ফর এপিডিমিওলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজিও (Gamalei National Research Center for Epidemiology and Microbiology) তৈরি করেছে। রাশিয়ার সেনাবাহিনী এই টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা শুরু করেছে।

গামালেই সেন্টারের প্রধান অ্যালেক্স্যান্ডার গিন্টসবার্গ, সে দেশের সরকারি সংবাদমাধ্যম টিএএসএসকে জানিয়েছেন যে তিনি আশা করেন ১২ থেকে ১৪ আগস্টের মধ্যে এই টিকা, “নাগরিক সঞ্চালনে প্রবেশ করতে পারে।”

অর্থাৎ আগস্ট থেকে নিয়ন্ত্রিত মাত্রায় এই টিকা উৎপাদন শুরু হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। সেই সঙ্গে তিনি আরও বলেন যে সেপ্টেম্বরে বেসরকারি অনেক সংস্থা এই টিকার ব্যাপক উৎপাদন শুরু করতে পারে।

অন্য দিকে সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ইয়েলেনা স্মলিয়ারচুক বলেন, “গবেষণার কাজ শেষ হয়েছে। প্রমাণিত হয়েছে যে টিকাটি পুরোপুরি নিরাপদ।”

মস্কো আগেই জানিয়েছিল যে সে দেশে আলাদা আলাদা ভাবে করোনাভাইরাসের ৫০টি টিকার ওপরে কাজ চলছে। এর মধ্যে আপাতত এই টিকাই যে এগিয়ে রয়েছে তা বলাই বাহুল্য।

Continue Reading

দেশ

“অযোধ্যা নেপালে, ভগবান রাম নেপালি”, বললেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি

তিনি বলেন, অযোধ্যা আসলে একটা ছোটো গ্রাম, বীরগঞ্জের ঠিক পশ্চিমে।

কাঠমান্ডু: এ বার ‘রাম’-এ ভাগ বসাল নেপাল (Nepal)। নেপালের প্রধানমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন, লক্ষ লক্ষ হিন্দু যে অযোধ্যাকে রামের জন্মভূমি বলে মনে করেন সেটি আসলে কাঠমান্ডুর কাছে একটি গ্রাম। শুধু তা-ই নয়, ভগবান রাম (Lord Ram) আসলে নেপালি।

নেপালি কবি ভানুভক্তের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সোমবার কাঠমান্ডুতে তাঁর বাসভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি (KP Sharma Oli) অযোধ্যা ও রাম নিয়ে এই দাবি করেন। তিনি ভারতের বিরুদ্ধে সাংস্কৃতিক অত্যাচার ও দখলদারির অভিযোগ করেন। বলেন, বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে নেপালের অবদানের যথাযথ মূল্য দেওয়া হয়নি।

প্রধানমন্ত্রী ওলি বলেন, “আমরা আজও বিশ্বাস করি যুবরাজ রামের হাতে আমরা সীতাকে তুলে দিয়েছি। কিন্তু আমরা অযোধ্যা থেকে যুবরাজকেও দিয়েছি, ভারত (India) দেয়নি। অযোধ্যা আসলে একটা ছোটো গ্রাম, বীরগঞ্জের ঠিক পশ্চিমে (বীরগঞ্জ নেপালের একটি জেলাসদর, রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে ১৩৬ কিমিদূরে), এখন যে অযোধ্যা সৃষ্টি করা হয়েছে সেটি আসল নয়।”

নেপালের যে নিউজ ওয়েবসাইট নিজেদের নেপালের ডিজিটাল নিউজপেপার বলে অভিহিত করে সেই সেতোপতিডটকম প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য উদ্ধৃত করে বলে, “সংস্কৃতিগত দিক থেকে আমরা কিছুটা অত্যাচারিত হয়েছি। আমাদের তথ্যাদি দখল করে নেওয়া হয়েছে।”

নেপালি সংবাদ মাধ্যমের সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই সূত্রে জানা গিয়েছে, নেপালি প্রধানমন্ত্রী বলেন, আসল অযোধ্যা নেপালে, ভারতে নয়। ভগবান রাম নেপালি, ভারতীয় নন।

ইদানীং নেপাল ক্রমান্বয়ে ভারতের বিরোধিতা করে চলেছে। প্রথম সূত্রপাত দেশের মানচিত্র নিয়ে। নেপালের সংশোধিত রাজনৈতিক মানচিত্রে উত্তরাখণ্ডের লিপুলেখ পাস, কালাপানি ও লিম্পিয়াধুরা অঞ্চল নেপালে দেখানো হয়েছে। এই সব অঞ্চল দাবি করার জন্য দেশের মানচিত্র আধুনিক করতে সংবিধান সংশোধনী প্রস্তাব গত মাসে নেপালের পার্লামেন্টে সর্বসম্মতি ক্রমে গৃহীত হয়েছে। ভারতের ওই অঞ্চলগুলি চিনা সীমান্ত বরাবর এবং ১৯৬২-এর চিন-ভারত যুদ্ধের পর ভারত সেখানে সেনা মোতায়েন জোরদার করেছে।

আরও পড়ুন: সংঘাত আরও বাড়ল, নেপালের বিতর্কিত মানচিত্র বিলে অনুমোদন রাষ্ট্রপতির

নেপালের এই দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে ভারত বলেছে, এ রকম কৃত্রিম ভাবে দেশের অঞ্চল বাড়িয়ে দেওয়া কখনোই মেনে নেওয়া যায় না।

এর পর মে মাসে নেপালি প্রধানমন্ত্রী হঠাৎ বলে বসলেন, তাঁর দেশে নভেল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার ব্যাপারে ভারত দায়ী।

দু’ দেশের এই টানাপোড়েনের মধ্যেই এ বার রাম আর অযোধ্যাকে নিয়ে টানাটানি। রাম আর অযোধ্যা নিয়ে নেপালি প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের আসল উদ্দেশ্য কী, সেটাই বোঝার চেষ্টা করছে কূটনৈতিক মহল।

Continue Reading

বিদেশ

প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কবলে নেপাল, ভূমিধসে মৃত ৬০

বৃহস্পতিবার রাত থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ব্যাপক বৃষ্টি হচ্ছে। তার জেরেই এই বিপর্যয়।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কবলে নেপাল (Nepal)। গত কয়েক দিন ধরে চলা প্রবল বৃষ্টির কারণে একাধিক ভূমিধসে কমপক্ষে ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিখোঁজ ৪১ জন।

বৃহস্পতিবার রাত থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ব্যাপক বৃষ্টি হচ্ছে। তার জেরেই এই বিপর্যয়।

প্রাকৃতিক এই দুর্যোগের কারণে কয়েক হাজার পরিবার গৃহহীন হয়ে পড়েছেন নেপালে। কাঠমান্ডু থেকে ২০০ কিলোমিটার উত্তরপশ্চিমের জেলা মিয়াগদিতে ২০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। পাশাপাশি ১৩ জনেরও বেশি নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

গত ২৪ ঘন্টায় ভারী বৃষ্টির কারণে সেখানে বেশ কয়েকটি বাড়িও ধসে পড়েছে। মিয়াগদিতে নিখোঁজদের সন্ধানে উদ্ধারকারীরা কাজ করে চলেছেন। এ ছাড়া কাসকি আর লামজুং জেলাতেও পরিস্থিতি ভয়াবহ।

মিয়াগদির জেলা প্রশাসক আরও জানিয়েছেন , দুর্গত এলাকার বহু মানুষকে হেলিকপ্টারে করে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই জেলা ছাড়াও, দেশের আরও ১৬টি জেলার পরিস্থিতিও চিন্তা বাড়াচ্ছে।

অন্য দিকে আবহাওয়া দফতর থেকে জানানো হয়েছে আগামী আরও ৭২ ঘণ্টা ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। ফলে এই উদ্বেগ কিছুতেই কমছে না সে দেশে।

এ দিকে নেপালে প্রবল বর্ষণ মানেই বিহারে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হওয়া। ঠিক সেটাই হয়েছে। রাজ্যের নদীগুলি কার্যত বিপদসীমা অতিক্রম করে ফেলেছে। বৃষ্টি না কমলে বিহারেও ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

Continue Reading
Advertisement

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা5 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা7 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

নজরে