নয়াদিল্লি: রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। আলোচনার মাধ্যমে ইউক্রেন সংকট মিটিয়ে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। শুক্রবার মস্কো নিজের প্রতিবেশী রাষ্ট্রে আক্রমণ শুরু করার পরে এমনটাই দাবি করেছে চিনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম।

ফোনে কী বললেন জিনপিং

চিনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল সিসিটিভি-র রিপোর্টে বলা হয়, পুতিনকে ফোন করে আলোচনার মাধ্যমে ইউক্রেন সংকট সমাধানের কথা বলেন জিনপিং। তিনি বলেন, “পূর্ব ইউক্রেনের পরিস্থিতি দ্রুত বদলে যাচ্ছে… এবং রাশিয়া ও ইউক্রেন যদি আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করে, তাতে সমর্থন থাকবে চিনের”।

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, ইউক্রেন সংকট নিয়ে একটি সতর্কতা মূলক কূটনৈতিক লাইন অনুসরণ করছে চিন। তারা ইউক্রেনে রাশিয়ার পদক্ষেপকে ‘আক্রমণ’ হিসেবে মানতে নারাজ। আবার দু’দিন ধরে চলমান রাশিয়ার হামলার নিন্দা করতেও অস্বীকার করেছে তারা।

পুতিনের সঙ্গে ফোনালাপে জিনপিং বলেন, “ঠান্ডা যুদ্ধের মানসিকতা ত্যাগ করা, সমস্ত দেশের যুক্তিসঙ্গত নিরাপত্তা উদ্বেগকে গুরুত্ব দেওয়া এবং সম্মান করা এবং আলোচনার মাধ্যমে একটি ভারসাম্যপূর্ণ, কার্যকর এবং টেকসই ইউরোপীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা গঠন করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ”।

জিনপিংয়ের কাছে পুতিনের ব্যাখ্যা

উলটো দিকে, পুতিন “বিশেষ সামরিক অভিযান” শুরু করার কারণগুলি ব্যাখ্যা করেন জিনপিংকে। তিনি বলেন, ন্যাটো এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র “রাশিয়ার যুক্তিসঙ্গত নিরাপত্তা উদ্বেগকে দীর্ঘদিন ধরে উপেক্ষা করেছে”। পাশাপাশি তিনি জিনপিংকে জানান, ইউক্রেনের সঙ্গে উচ্চপর্যায়ের আলোচনায় বসতে প্রস্তুত রাশিয়া।

মস্কোর দৃষ্টিভঙ্গি চিনের দীর্ঘস্থায়ী বিদেশিনীতির অবস্থানের সম্পূর্ণ বিপরীত। তবুও ইউক্রেন সংকট বেড়ে চললেও ইউরোপের অন্যতম অর্থনীতির সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে বাধ্য চিন। জিনপিং বলেন, একটি সর্বজনীন, ব্যাপক, সহযোগিতামূলক এবং টেকসই নিরাপত্তার জন্য রাষ্ট্রসঙ্ঘ-সহ আন্তর্জাতিক সব পক্ষের সঙ্গেই কাজ করতে ইচ্ছুক তাঁরা।

মোদীর ফোন পুতিনকে

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে হিংসা অবিলম্বে বন্ধ করে আলোচনার টেবিলে বসার জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে অনুরোধ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। বৃহস্পতিবার রাতের দিকে পুতিনকে ফোন করেন মোদী। কূটনৈতিক আপস আলোচনায় ফিরে আসার জন্য সব দিক থেকে সম্মিলিত ভাবে উদ্যোগী হওয়ার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর অফিস যে বিবৃতি জারি করেছে তা থেকে জানা যায়, ইউক্রেন নিয়ে সাম্প্রতিক কী ঘটনা ঘটেছে সে সম্পর্কে মোদীকে বুঝিয়ে বলেন পুতিন।

আরও পড়তে পারেন:

টানা দু’দিন একতরফা আক্রমণের পর অবশেষে কিছুটা নমনীয় হওয়ার বার্তা দিল রাশিয়া

ইউক্রেনের প্রতিবেশি চার দেশের সীমান্ত দিয়ে ভারতীয়দের ফেরাতে তৎপর কেন্দ্র

কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াই পুরভোট, সুপ্রিম কোর্টেও খারিজ বিজেপি-র আরজি

বিটকয়েন কি বেআইনি? ২০ হাজার কোটি টাকার কেলেঙ্কারিতে কেন্দ্রকে কঠিন প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের

নিম্নমুখী সংক্রমণ, কোভিডবিধি শিথিল করতে রাজ্যকে পরামর্শ কেন্দ্রের

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন