‘বর্ণবিদ্বেষী চার্চিল’, লন্ডনে মূর্তি বিকৃত করার পর বাংলার দুর্ভিক্ষে তাঁর ভূমিকা স্মরণ টুইটারে

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: যদি আমরা পশ্চিমের ইতিহাস পড়ি তা হলে দেখতে পাব তাতে লেখা আছে উইনস্টন চার্চিল (Winston Churchill) ছিলেন একজন সেনা অফিসার, যিনি ১৯৪০ থেকে ১৯৪৫ পর্যন্ত ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে দেশের জন্য জয় এনে দিয়েছিলেন।

কিন্তু ভারতে তাঁর পরিচয় হচ্ছে সেই ব্যক্তি হিসাবে যিনি বাংলায় ’৪৩-এর দুর্ভিক্ষ (Bengal Famine) সৃষ্টি করেছিলেন। যে দুর্ভিক্ষে তৎকালীন অবিভক্ত বঙ্গে (অধুনা পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ) ২১ থেকে ৩০ লক্ষ লোকের মৃত্যু হয়েছিল।

রবিবার গভীর রাতে লন্ডনের (London) পার্লামেন্ট স্কোয়ারে এ হেন চার্চিলের মূর্তিটি বিকৃত করা হয়। কালো মার্কার পেন দিয়ে চার্চিলের নামটি কেটে দেওয়া হয়েছে এবং তার তলায় লিখে দেওয়া হয়েছে ‘ওয়াজ আ রেসিস্ট’ (বর্ণবিদ্বেষী ছিলেন)। পরে অবশ্য তা পরিষ্কার করে দেওয়া হয়।

প্রতিবাদকারীরা চার্চিল স্মারকের গায়ে একটি পোস্টার আটকে দেয়। তাতে লেখা ছিল ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ (কালোদের জীবনের মূল্য আছে)(Black Lives Matter)।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশি হেফাজতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের (George Floyd) মৃত্যুর পর বিশ্ব জুড়ে যে প্রতিবাদ আন্দোলন চলছে তার নাম দেওয়া হয়েছে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’। এরই অঙ্গ হিসাবে গত সপ্তাহের শেষে ব্রিটেনে শ’ দুয়েক সমাবেশের আয়োজন করা হয় যাতে এক লক্ষেরও বেশি মানুষ যোগ দেন।

চার্চিলের মূর্তি বিকৃত করার খবর পেয়ে টুইটারে নেটিজেনরা বঙ্গের দুর্ভিক্ষে তাঁর ভূমিকার প্রসঙ্গ তোলেন এবং বলেন, মূর্তি বিকৃত করার ব্যাপারটি ঐতিহাসিক দিক থেকে ভুল নয়।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন