কলম্বো: ভয়ানক অর্থনৈতিক সঙ্কটের মুখে পড়েছে শ্রীলঙ্কা। দেশে জ্বালানির হাহাকার। প্রায় বন্ধ পরিবহণ। খরচ বাঁচাতে ১০-১৩ ঘণ্টা লোডশেডিং করা হচ্ছে দেশ জুড়ে। এ বার যেন ধৈর্যের বাঁধ ভাঙল মানুষের মধ্যে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দফায় দফায় সংঘর্ষে উত্তাল হল কলম্বো।

প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পদত্যাগের দাবিতে হাজার হাজার মানুষ তাঁর বাসভবনের সামনে বিক্ষোভে শামিল হন। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষও বাধে বিক্ষোভকারীদের। পরিস্থতি সামাল দিতে প্রাথমিক ভাবে ব্যর্থ হয় পুলিশ। বিক্ষোভ ঠেকাতে বিশেষ টাস্ক ফোর্সকে ডাকতে বাধ্য হয় প্রশাসন। এই ঘটনায় এক মহিলা-সহ মোট ৪৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন।

ওই আধিকারিক আরও জানিয়েছেন, ‘‘গত রাতে মিরিহানা, নুগেগোডায় বিক্ষোভের পরে এক জন এএসপি সহ পাঁচ পুলিশ অফিসার আহত হয়েছেন এবং হাসপাতালে তাঁদের চিকিৎসা করা হচ্ছে। পুলিশের একটি বাস, একটি জিপ, দু’টি মোটরবাইক পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে একটি জলকামান।’’ এই ঘটনার পর কলম্বোর বিভিন্ন জায়গায় কার্ফু জারি করা হয়েছে।

স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে এটিই শ্রীলঙ্কার সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক সঙ্কট বলে মনে করা হচ্ছে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে দেশে খাদ্য, প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র, জ্বালানি ও গ্যাসের ব্যাপক ঘাটতি দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার ডিজেলের ঘাটতির কারণে সারা দেশে ১৩ ঘণ্টার জন্য বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করা হয়। বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হওয়ার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয় চিকিৎসা পরিষেবাও। হাসপাতালে বন্ধ হয়ে যায় অস্ত্রোপচার।

এ সবের প্রতিবাদে সন্ধে নাগাদ, প্রেসিডেন্টের বাড়ির কাছে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ দেখান সাধারণ মানুষ। প্রেসিডেন্ট এবং তাঁর পরিবারের দেশ ছা়ড়ার দাবিতেও সরব হন বিক্ষোভকারীরা। তবে বিক্ষোভ চলার সময় প্রেসিডেন্ট বাসভবনে ছিলেন না বলেও জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য শ্রীলঙ্কায় পুরোপুরি পারিবারিক রাজনীতি চলছে। গাতাবোয়া প্রেসিডেন্ট, তাঁর দাদা মাহিন্দা প্রধানমন্ত্রী, সব থেকে বড়ো দাদা চমল হলে কৃষিমন্ত্রী এবং সব থেকে ছোটো ভাই বাসিল হলেন অর্থমন্ত্রী। ভাইপো নমল হলেন ক্রীড়ামন্ত্রী। সেই কারণে রাজাপক্ষে পরিবারকেই এই অর্থনৈতিক মন্দার জন্য দায়ী করছেন সাধারণ মানুষ।

আরও পড়তে পারেন:

টেস্ট বাড়ার ফলে সামান্য বেড়ে তেরোশোর ঘরে ঢুকল ভারতের করোনা সংক্রমণ

মাস্ক না পরলে আর জরিমানা নয় দিল্লিতে

সব কোভিডবিধি উঠিয়ে দিয়ে মহারাষ্ট্র জানিয়ে দিল মাস্কও আর বাধ্যতামূলক নয়

শেষ বল পর্যন্ত লড়ব, জাতির উদ্দেশে ভাষণে বললেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন