বিশ্ব জুড়ে করোনাভাইরাসের দাপট কি কমছে? প্রাথমিক ইঙ্গিত পেলেন বিশেষজ্ঞরা

খবর অনলাইনডেস্ক: স্বস্তির সময়ে কি এসেছে? বেশ কিছু বিশেষজ্ঞ মনে করছেন বিশ্ব জুড়ে দাপট কমছে করোনাভাইরাসের (Coronavirus)। যদিও তাঁরা এখনই আত্মতুষ্ট হতে রাজি নন।

বিশ্বে যে সব দেশে করোনা সব থেকে বেশি প্রভাব ফেলেছে, তাদের বর্তমান গ্রাফ দেখে এই প্রাথমিক ইঙ্গিতটা করতে পারছেন বিশেষজ্ঞরা। সেখানে দেখা যাচ্ছে ইতালি (Italy), স্পেনে (Spain) নতুন করে আক্রান্তের সঙ্গে দিনের পর দিন কমছে।

শুধু ইতালি বা স্পেনই নয়, গত কয়েক দিনে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে ব্রিটেন (Britain) আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও (USA)।

যদিও এই কমার ধারাটা মাত্র কয়েক দিন হল শুরু হয়েছে। ফলে এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলতে রাজি নন বিশেষজ্ঞরা, তবে অনেক বিশেষজ্ঞই কিন্তু ইতিবাচক মনোভাব দেখাতে শুরু করেছেন।

ইতালির এই গ্রাফ বোঝাচ্ছে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কমছে। গ্রাফ সৌজন্য ‘বিজনেস ইনসাইডার।’
স্পেনেও কমেছে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা।
ব্রিটেনে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কমার ইঙ্গিত দিচ্ছে এই গ্রাফটি।

গত রবিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ইতালির এক স্বাস্থ্য আধিকারিক বলেন, “গত ২৪ ঘণ্টায় মাত্র ৫০ জনকে আইসিইউতে ভরতি করা হয়েছে। আগের দিন সংখ্যাটা ১২০ ছিল।”

এমনিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা চার হাজারের কিছু বেশি। ১৭ মার্চের পর এত কম সংখ্যক নতুন আক্রান্ত ইতালি দেখেনি।

আরও পড়ুন পরিযায়ী শ্রমিকদের মনোবল বাড়ানোর জন্য বিশেষ নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

অন্য দিকে বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ব্রিটেনের মহামারি সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞ তথা যথেষ্ট প্রভাবশালী ব্যক্তি নিল ফার্গুসন বলেন, “করোনাভাইরাসের দাপট কমার প্রাথমিক ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।”

তিনি বলেন, “কত জন নতুন করে হাসপাতালে ভরতি হয়েছে দেখুন। সংখ্যাটা দেখে কিন্তু মনে হচ্ছে একটু দাপট কমছে। আক্রান্তের সংখ্যা তো বাড়বেই। কিন্তু গত কয়েক দিনে যে হারে বাড়ছিল, সেটা কিন্তু কমেছে।”

তবে তিনি সতর্ক করেছেন যে মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমশ বাড়বে। যদিও মৃত্যুর নিরিখে পরিস্থিতির উন্নতি বা অবনতি বিচার করা ঠিক হবে না বলেই দাবি তাঁর।

তবে ইউরোপের অন্য দেশগুলির থেকে কিছুটা পিছিয়ে রয়েছে ব্রিটেন। কারণ সেখানে লকডাউন (Lockdown) শুরু হয়েছে এক সপ্তাহও হয়নি। ফলে আরও এক-দেড় সপ্তাহ না গেলে লকডাউনের ফল পাওয়া যাবে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

অন্য দিকে পরিস্থিতির একটু পরিবর্তন হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও। গত এক সপ্তাহের মধ্যে রবিবারই নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে নিউ ইয়র্কে। আমেরিকায় কোভিড ১৯ রোগীর সংখ্যা দেড় লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে যার মধ্যে অধিকাংশই নিউ ইয়র্কের।

অন্য দিকে অস্ট্রেলিয়াতেও (Australia) নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কমছে বলে জানা গিয়েছে। গত সপ্তাহে সে দেশে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের তুলনায় ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ করে বাড়ছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় সেই সংখ্যাটা বেড়েছে মাত্র ৯ শতাংশ।

যদিও কোনো আত্মতুষ্টির জায়গা নেই বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া প্রশাসন। গত কয়েক দিন ধরে সেখানে লকডাউন যে ভাবে চলছিল, সেটা চলবে বলেই জানানো হয়েছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের এই সব তথ্য সংগ্রহ করে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, খুব প্রাথমিক ভাবে হলেও দাপট কমছে করোনাভাইরাসের।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.