ওয়াশিংটন : ৩৬ বছরে প্রথম বার নিয়মভঙ্গ হল।  ক্ষমতায় আসার ১০০ দিনের পূর্তিতে হোয়াইট হাউজে সাংবাদিকদের নৈশভোজন, কিন্তু উপস্থিত হলেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই আয়োজন করা হয়েছিল প্রচলিত রীতি মেনে। কিন্তু তা এড়িয়ে পেনসিলভেনিয়ায় সমাবেশ করলেন ট্রাম্প। সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক আদায় কাঁচকলায় তা এত দিনে বেশ স্পষ্ট। তিনি ব্যাপারটা আরও প্রকট করে দিলেন শনিবার। প্রসঙ্গত, ১৯৮১ সালে আহত থাকার জন্য এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারেননি তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগন।

শুধু সাংবাদিকদের এড়িয়েই গেলেন না, সমাবেশে ট্রাম্প জঘন্য ভাবে আক্রমণও করলেন সংবাদমাধ্যমকে। বললেন, মিথ্যে খবর প্রচার করেন এই সাংবাদিকরা। সংবাদমাধ্যম তাঁর ১০০ দিনের ক্ষমতায় আসার সমাবেশ ঠিকমতো সম্প্রচার করতে ব্যর্থ হয়েছে। তাই তাদেরই খারাপ নম্বর দেওয়া উচিত।

অন্য দিকে, হোয়াইট হাউজের নৈশভোজে উপস্থিত রয়টারের সাংবাদিক জেফ মাসন বলেন, তাঁরা কখনওই মিথ্যা তথ্য প্রচার করেন না। তাঁদের কাজ সত্য ঘটনা তুলে ধরা। তাঁদের কাজ, নেতাদের মতামত জানতে চাওয়া, জবাব চাওয়া।

পেনিসিলভেনিয়ার সমাবেশে প্রেসিডেন্ট বলেন, তিনি এই ১০০ দিনের প্রতিটি দিন কাজ করেছেন দেশের স্বার্থে। দারুণ কাজ হয়েছে। দেশের স্বার্থবিরোধী সব চুক্তি তিনি নাকচ করেছেন। যাঁরা দেশ ছেড়ে অন্যত্র কাজ করছিলেন তাঁদের দেশে ফিরিয়ে এনেছেন। বহিরাগতদের সরিয়ে দিয়ে দেশবাসীর জন্য কাজের সুযোগ সৃষ্টি করেছেন। ওবামার আমলে স্বাক্ষরিত ট্রান্স প্যাসিফিক চুক্তির মতো যুক্তিহীন অলাভজনক চুক্তি বাতিল করেছেন। ওবামা সবই জগাখিচুড়ি করে রেখেছেন। তা ছাড়া ট্রাম্প বলেন, আসন্ন যুদ্ধের জন্য তৈরি দেশ।

সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, হোয়াইট হাউজ থেকে দূরে এই সমাবেশ করতে পেরে তিনি খুবই উৎসাহিত। কারণ সেখানে হলিউড অভিনেতা-অভিনেত্রী আর সাংবাদিকদের উপস্থিতি খুবই বিরক্তিকর।

উল্লেখ্য, এ দিন হোয়াইট হাউজের নৈশভোজনে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় বংশোদ্ভুত কৌতুকশিল্পী হাসান মিনাজ। তিনি এ দিন অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও সংবাদমাধ্যমের নকল করে কৌতুক নকশা প্রদর্শন করেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here