ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট দু’ বছরের জন্য সাসপেন্ড করে দিল ফেসবুক

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সদ্য প্রাক্তন হওয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট (Ex US President) ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) ফেসবুক (Facebook) অ্যাকাউন্ট দু’ বছরের জন্য সাসপেন্ড করে দেওয়া হল। সোশ্যাল মিডিয়ায় সব চেয়ে ক্ষমতাশালী কোম্পানি শুক্রবার এই ঘোষণা করেছে।

এই সাসপেনশন এ বছরের ৭ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছে। এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা হবে ২০২৩-এর ৭ জানুয়ারি।

Loading videos...

যে সব বিশ্বনেতা ফেসবুকের নিয়ম লঙ্ঘন করেন, তাঁদের প্রতি কোম্পানি কী আচরণ করতে পারে তা ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড করার মধ্যে দিয়ে বুঝিয়ে দেওয়া হল।

কেন এই সাসপেনশন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটলে এ বছরের ৬ জানুয়ারি যে দাঙ্গা হয়েছিল তার প্রেক্ষিতে দাঙ্গাকারীদের সমর্থন করে ডোনাল্ড ট্রাম্প ফেসবুকে পোস্ট করেন। ফেসবুকের মনে হয়েছিল এই পোস্ট আরও হিংসা সৃষ্টি করতে পারে। তাই ফেসবুক ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দেয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রাম্পের ভবিষ্যৎ নিয়ে কয়েক মাস ধরে বিতর্ক চলার পর মে মাসে ফেসবুকের নিরপেক্ষ ওভারসাইট বোর্ড সেই ব্লক বহাল রাখে। এখন সেই সাসপেনশন দু’ বছরের জন্য কার্যকর করা হল।

ফেসবুকের গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট নিক ক্লেগ বলেছেন, “আমরা মনে করি, তাঁর কাজে আমাদের নিয়ম মারাত্মক ভাবে লঙ্ঘিত হয়েছে। আমাদের নতুন প্রোটোকলে যে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে, তাই তাঁর পাওয়া উচিত। তাঁর অ্যাকাউন্ট আমরা দু’ বছরের জন্য সাসপেন্ড করছি। এ বছরের ৭ জানুয়ারি থেকে প্রাথমিক ভাবে যে সাসপেনশন চলছিল, সে দিন থেকেই এই দু’ বছর ধরা হবে।”

অ্যাকাউন্ট পুনর্বহাল হবে?

ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট যদি ফিরিয়ে আনা হয়, তা হলে জননিরাপত্তার পক্ষে কতটা ঝুঁকিপূর্ণ হবে তা দু’ বছর পরে খতিয়ে দেখবে ফেসবুক।

ক্লেগ বলেন, “আমরা সমস্ত কিছু খতিয়ে দেখব – হিংসার ঘটনা, শান্তিপূর্ণ সমাবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা, আসামরিক অশান্তির অন্যান্য ঘটনা। যদি আমরা দেখি যে তখনও তাঁর অ্যাকাউন্ট জননিরাপত্তার পক্ষে খুবই ঝুঁকিপূর্ণ, তা হলে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে এবং যত দিন না দেখব ঝুঁকি আর নেই তত দিন মাঝে মাঝেই পুনর্মূল্যায়ন করে যাব।”

আরও পড়ুন: বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০২১: করোনা গেলেও জীবনের সঙ্গে মাস্ককে জড়িয়ে রাখবে দূষণ   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.