Connect with us

বিদেশ

শ্রীলঙ্কার জাতীয় পতাকার রঙে আলোকমালায় সেজে উঠল দুবাইয়ে বুর্জ খলিফা

Burj Khalifa

ওয়েবডেস্ক: দুবাইয়ের আইকনিক গগনচুম্বী বুর্জ খলিফায় ফুটে উঠল শ্রীলঙ্কার জাতীয় পতাকা। আলোকমালায় সে দেশের জাতীয় পতাকার রঙে সেজে উঠেই গত রবিবার ইস্টারের প্রার্থনাসভার দিন বোমা হামলায় নিহতদের উদ্দেশে শ্রদ্ধা জানাল সংযুক্ত আবর আমিরশাহি।

সহনশীলতা এবং সহাবস্থানের উপর নির্মিত একটি বিশ্বের বার্তা নিয়েই যে শ্রীলঙ্কার জাতীয় পতাকার রঙে বিশ্বের উচ্চতম টাওয়ারটিকে সাজিয়ে তোলা হয়েছিল, সে কথা বৃহস্পতিবার রাতে জানান বুর্জ খলিফা কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সংবাদপত্র খালিজ টাইমস জানিয়েছে, বুর্জ খলিফা ছাড়াও আবুধাবির একাধিক টাওয়ারেও শ্রীলঙ্কার জাতীয় পতাকার রঙে আলোকমালায় সাজিয়ে তোলা হয়।

মহাত্মা গান্ধীর জন্ম সার্ধশতবর্ষ উপলক্ষে এ ভাবেই গত বছর সেজে উঠেছিল বুর্জ খলিফা

প্রসঙ্গত, সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ দিন বলা হয়েছে, শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি সিরিসেনার আশঙ্কা, সে দেশের বেশ কিছু তরুণ ২০১৩ সাল থেকেই আইএসের সঙ্গে জড়িত আছেন। পুলিশ তাঁদের আটক করার চেষ্টা করছে বলেও নিশ্চিত করেছেন সিরিসেনা। তাঁর দাবি, এ ছাড়া দেশের অভ্যন্তরে আইএসকে ‘সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ’ করার ক্ষমতা শ্রীলঙ্কার আছে।

একই সঙ্গে জানা গিয়েছে, হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহভাজনদের খুঁজে বের করার জন্য ও উপাসনালয়গুলোতে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য প্রায় ১০ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে শ্রীলঙ্কা সরকার।

বিদেশ

আইসোলেশনে থাকাকালীন বিশালাকার পাখির কামড় খেলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এ যেন মরার ওপর খাঁড়ার ঘা! একেই করোনায় (Coronavirus) জর্জরিত তিনি, তার ওপর আবার বিশালাকার পাখির কামড় খেলেন। তীব্র যন্ত্রণা সহ্য করতে হল। কিছুটা রক্তও পড়ল। ব্যাপারটা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চার বিষয়েও হয়ে গিয়েছে।

তিনি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসানারো (Jair Bolsanaro)। গত সপ্তাহে কোভিড পজিটিভ হওয়ার পর নিজের বাড়িতেই আইসোলেশনে রয়েছেন তিনি। বন্দিদশার মধ্যে একদিন বিকেলে বিশালাকার রিয়া পাখিদের খাবার খাওয়াতে গিয়েছিলেন তিনি। তখনই একটি পাখি তাঁর হাতে কামড় বসিয়ে দেয়।

এমুর মতো দেখতে এই রিয়া পাখি দক্ষিণ আমেরিকার বিশেষ আকর্ষণ। সেই পাখি বোলসানারোর হাতে কামড়ে দেওয়ার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর সংবাদমাধ্যমে তা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

উল্লেখ্য গত সপ্তাহের মঙ্গলবার কোভিড পজিটিভ হয়েছেন ৬৫ বছর বয়সি বোলসানারো। তবে তিনি এক্কেবারেই উপসর্গহীন। জ্বর, কাশি, শ্বাসকষ্ট কিছুই নেই তাঁর।

Continue Reading

দেশ

‘অযোধ্যাকে হেয় করা হয়নি’, ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেপালের বিদেশ মন্ত্রক

বিদেশ মন্ত্রক বলেছে, অযোধ্যা ও তার গুরুত্বকে অসম্মান করার কোনো উদ্দেশ্য তাঁর ছিল না।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ক্ষতি যা করার করে দিয়েছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী (Nepal Prime Minister) কেপি শর্মা ওলি (KP Sharma Oli)। এখন সেই ক্ষতি মেরামত করার পথে নামল নেপালের বিদেশ মন্ত্রক।

সোমবার কাঠমান্ডুতে নেপালি কবি ভানুভক্তের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নিজের বাসভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে রাম (Rama) ও অযোধ্যা (Ayodhya) সম্পর্কে নেপালের প্রধানমন্ত্রী যে মন্তব্য করেছেন, সে সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বিদেশ মন্ত্রক (Nepal Foreign Ministry) বলেছে, ওলির মন্তব্য রাজনৈতিক নয় এবং অযোধ্যা ও তার গুরুত্বকে অসম্মান করার কোনো উদ্দেশ্য তাঁর ছিল না।

ওই অনুষ্ঠানে নেপালের প্রধানমন্ত্রী বলেন, আসল অযোধ্যা ভারতের উত্তরপ্রদেশে নয়, নেপালের বীরগঞ্জের কাছে এবং ভগবান রাম ভারতীয় নন, নেপালি। প্রধানমন্ত্রীর এই মন্তব্যে ভারত এবং নেপাল, দু’ দেশেই সমালোচনা ও নিন্দার ঝড় ওঠে।

তাঁর বক্তব্য প্রসঙ্গে নেপালি বিদেশ মন্ত্রকের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “প্রধানমন্ত্রী যে মন্তব্য করেছেন তার সঙ্গে কোনো রাজনৈতিক বিষয়ের যোগ নেই এবং কারও অনুভূতি এবং ভাবাবেগে আঘাত করার কোনো উদ্দেশ্য ছিল না। অযোধ্যার গুরুত্বকে হেয় করা বা তার সাংস্কৃতিক মূল্যকে খাটো করতে ওই মন্তব্য করা হয়নি।”

আরও পড়ুন: অযোধ্যা ও তার গুরুত্বকে অসম্মান করার কোনো উদ্দেশ্য তাঁর ছিল না।

ওলির চাপাচাপিতেই ভারতের এলাকা নিজেদের দাবি করে এবং নেপালি পার্লামেন্টে গৃহীত সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে তাকে অনুমোদন দিয়ে ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক এমনিতেই খারাপ করেছে নেপাল। এর ওপর আবার রাম আর অযোধ্যা নিয়ে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর মনপসন্দ মন্তব্য দু’ দেশের সম্পর্ককে আরও তলানিতে নিয়ে যাচ্ছে।

উত্তরাখণ্ডের এলাকাকে নিজেদের বলে দাবি করে নেপাল যে সংশোধিত মানচিত্র প্রকাশ করেছে তা যেমন পত্রপাঠ খারিজ করে দিয়েছে ভারত, তেমনই ওলিকে ক্ষমতাচ্যুত করার ব্যাপারে তারা কলকাঠি নাড়ছে, এমন অভিযোগও ভারত উড়িয়ে দিয়েছে।

ওলির আচরণ, বক্তব্য ইত্যাদি নিয়ে শুধু ভারতেই নয়, নেপালেও ঝড় উঠেছে। নেপালেই অনেকেই বলছেন, নিজের সরকারের ব্যর্থতা ঢাকতেই বার বার ভারত কার্ড খেলছেন ওলি।

রাম, অযোধ্যা নিয়ে তাঁর আলটপকা মন্তব্য তাঁকে নিজের দেশেই সমালোচনার মুখে ঠেলে দিয়েছে। নেপালের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বাবুরাম ভট্টরাই সোমবার টুইট করে বলেছেন, ওলির দাবি বিদঘুটে। এই বিষয়ে ওলির বিশ্বাসযোগ্যতার প্রশ্ন তুলে ভট্টরাই বলেছেন, “আসুন, আমরা অর্ধ-কবি ওলিকৃৎ কলি যুগিনের নতুন রামায়ণ শুনি! চলুন আমরা সরাসরি বৈকুণ্ঠধাম যাই!”

ক্ষতি মেরামত করতে গিয়ে নেপালের বিদেশ মন্ত্রক আরও বলেছে, আসলে রামায়ণের বিশালত্ব বোঝার জন্য ওলি এ বিষয়ে আরও পড়াশোনা ও গবেষণার বিষয়টিই তুলে ধরার চেষ্টা করছিলেন।

বিদেশ মন্ত্রকের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “শ্রীরাম ও তাঁর সঙ্গে জড়িত জায়গাগুলি নিয়ে অনেক কাহিনি, অনেক প্রসঙ্গ উঠে এসেছে। শ্রীরাম, রামায়ণ এবং এই উন্নত সভ্যতার সঙ্গে জড়িত নানা জায়গা সম্পর্কে তথ্য পেতে রামায়ণের বিশাল সাংস্কৃতিক ভূগোল নিয়ে যে আরও পড়াশোনা ও গবেষণা করা দরকার সেটারই গুরুত্ব তুলে ধরছিলেন প্রধানমন্ত্রী।”

Continue Reading

বিদেশ

মধ্য-আগস্টেই বাজারে আসতে পারে করোনার ভ্যাকসিন, দাবি রাশিয়ার

খবরঅনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাসের (Coronavirus) ভ্যাকসিন নিয়ে গোটা বিশ্বের বিজ্ঞানীরা লড়ে যাচ্ছেন। কে আগে ভ্যাকসিন বাজারে আনবে, সেই নিয়ে অলিখিত প্রতিযোগিতাও শুরু হয়ে গিয়েছে। এরই মধ্যে রাশিয়া (Russia) দাবি করেছে, মধ্য আগস্টের মধ্যেই বিশ্বের প্রথম করোনাভাইরাস-প্রতিরোধী টিকাকে তারা বাজারে আনতে পারবে।

রবিবার রাশিয়ার সেচনেভ বিশ্ববিদ্যালয়ের (Sechnov University) গবেষকরা দাবি করেন যে মানবদেহে করোনার টিকা প্রয়োগের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে ফেলেছে তারা।

প্রথম যে দলটির় উপরে পরীক্ষামূলক ভাবে টিকা প্রয়োগ করা হয়েছিল, তাঁরা আগামী বুধবার ছাড়া পাবেন। আর দ্বিতীয় দল ছাড়া পাবে ২০ জুলাই।

মস্কো টাইমসের রিপোর্ট অনুযায়ী সেচনেভ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি একই টিকা গামালেই ন্যাশনাল রিসার্চ সেন্টার ফর এপিডিমিওলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজিও (Gamalei National Research Center for Epidemiology and Microbiology) তৈরি করেছে। রাশিয়ার সেনাবাহিনী এই টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা শুরু করেছে।

গামালেই সেন্টারের প্রধান অ্যালেক্স্যান্ডার গিন্টসবার্গ, সে দেশের সরকারি সংবাদমাধ্যম টিএএসএসকে জানিয়েছেন যে তিনি আশা করেন ১২ থেকে ১৪ আগস্টের মধ্যে এই টিকা, “নাগরিক সঞ্চালনে প্রবেশ করতে পারে।”

অর্থাৎ আগস্ট থেকে নিয়ন্ত্রিত মাত্রায় এই টিকা উৎপাদন শুরু হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। সেই সঙ্গে তিনি আরও বলেন যে সেপ্টেম্বরে বেসরকারি অনেক সংস্থা এই টিকার ব্যাপক উৎপাদন শুরু করতে পারে।

অন্য দিকে সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ইয়েলেনা স্মলিয়ারচুক বলেন, “গবেষণার কাজ শেষ হয়েছে। প্রমাণিত হয়েছে যে টিকাটি পুরোপুরি নিরাপদ।”

মস্কো আগেই জানিয়েছিল যে সে দেশে আলাদা আলাদা ভাবে করোনাভাইরাসের ৫০টি টিকার ওপরে কাজ চলছে। এর মধ্যে আপাতত এই টিকাই যে এগিয়ে রয়েছে তা বলাই বাহুল্য।

Continue Reading
Advertisement
বিজ্ঞান7 hours ago

সূর্যাস্তের পর অন্তত ২০ মিনিট দেখুন উত্তর-পশ্চিম আকাশে ধূমকেতু ‘নিওওয়াইজ’, চলবে মাসভর

বাংলাদেশ9 hours ago

বাবা-মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় প্লে-ব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর

রাজ্য11 hours ago

প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিকের ফলাফল, ভরতি কবে এবং কী ভাবে?

প্রযুক্তি12 hours ago

রিলায়েন্সের নতুন ‘জিও গ্লাস’, চশমাটি কী কাজে লাগবে?

রাজ্য13 hours ago

কলকাতার পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে উত্তরবঙ্গের দুই জেলার করোনা-পরিস্থিতি

Amit Shah
দেশ13 hours ago

মোদী সরকারের অগ্রাধিকারের তালিকায় নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা: অমিত শাহ

গান-বাজনা14 hours ago

১২ বছরের পথচলায় ‘মুক্তধারা’র মুকুটে আরও একটি পালক, চালু হল ইউটিউব চ্যানেল

laptop
কেনাকাটা14 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

কেনাকাটা

laptop laptop
কেনাকাটা14 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা6 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা1 week ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে