Lombok
বৃহস্পতিবার ভূমিকম্পের পর চলছে উদ্ধারকাজ। ছবি: দ্য গার্ডিয়ান থেকে

ওয়েবডেস্ক: গত রবিবার প্রবল ভূমিকম্পের পর আফটার শকের আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ইন্দোনেশিয়ার লম্বোক দ্বীপে। গত বৃহস্পতিবারও মৃত্যু হয়েছে বেশ কয়েক জনের। প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, গত রবিবার থেকে মৃতের সংখ্যা ৩১৯-এ ঠেকেছে।

গত রবিবার লম্বোক দ্বীপের ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল ভূপৃষ্ঠ থেকে মাত্র ১৭ কিমি গভীরে। ফলে সে সময়ই ওই দ্বীপে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়। কিন্তু সুনামির মতো বড়োসড়ো প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সম্মুখীন না হলেও ভূমিকম্পের আফটার শকের কারণে যেমন আতঙ্ক ছড়াচ্ছে তেমনই ব্যাহত হচ্ছে উদ্ধারকাজ।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, গত মাসের ভূমিকম্পের পর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় ত্রাণশিবির গড়ে তোলা হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তী ভূমিকম্পগুলিতে সেগুলির অবস্থা ভেঙে পড়েছে। গত বৃহস্পতিবার ভূমিকম্পের আফটার শকের কম্পাঙ্ক ছিল ৬.২।

লম্বোকের অপেক্ষাকৃত জনবহুল শহর মাতারম এবং পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলিই গত রবিবারের ভূমিকম্পে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। বৃহস্পতিবারের আফটার শকে ওই এলাকাগুলিতেই সাধারণ মানুষের মধ্যে সব থেকে বেশি আতঙ্ক ছড়ায়। যে কারণে তড়িঘড়ি ঘর ছেড়ে পালাতে গিয়ে সিঁড়ি থেকে পড়ে গিয়ে মৃত্যুরও ঘটনাও বৃহস্পতিবার ঘটেছে বলে স্থানীয় মানুষ জানিয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন