ফিলিপিন্স : রিখটার স্কেলে কম্পন মাত্রা ৫ থেকে ৫.৯। শনিবার পর পর তিনটি ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ফিলিপিন্সের প্রধান দ্বীপ লুজানের একেবারে দক্ষিণে সমুদ্রতীরবর্তী বাটাঙ্গা, মানিলা থেকে ৯০ কিলোমিটার দক্ষিণে। স্থানীয় সময় তখন দুপুর ৩টে। হতাহতের খবর নেই। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। তবে কম্পনের পর কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। কোথাও কোথাও ফাটল দেখা যায়। কোনো কোনো জায়গায় মাটিতে ধ্বস নামে। একটি ক্যাথলিক গির্জার কিছুটা অংশ ভেঙে পড়ে। দ্রুত বন্দর এলাকা ফাঁকা করে দেওয়া হয়। চলতি সপ্তাহের শুরুতেও এই এলাকায় কম্পন অনুভূত হয়েছিল। এ দিনের তিনটি কম্পনের মধ্যে সব চেয়ে তীব্রটির মাত্রা ৫.৯। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জিওলজিক্যাল সার্ভে জানায়, প্রায় কুড়ি মিনিট ধরে এই কম্পন স্থায়ী হয়। ভূমিকম্পের উৎস ছিল মাটির ২৭ মাইল গভীরে। 

 

প্রাদেশিক বিপর্যয় কাউন্সিলের প্রধান লিটো কাস্ত্রো জানান, কম্পনের পর এলাকা ফাঁকা করে দেওয়া হয়। ভূমিকম্পের পর সেখানকার বাসিন্দা আর পর্যটকরা সুনামির আশঙ্কায় ভীত হয়ে পড়েন। কিন্তু ফিলিপিন্স ইনস্টিটিউট অব ভলক্যানোলজি ও সিসিমোলজির প্রধান রেনাটো সলিডম জানান, সুনামি সৃষ্টি করার জন্য যে শক্তিশালী কম্পনের দরকার এর কোনোটাই ততটা শক্তিশালী ছিল না।

 

সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, মাকাতি জেলায় ১ মিনিট পর্যন্ত কম্পন অনুভূত হয়।   

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here