isis
আইসিসের সাম্রাজ্য পতনের পর সেনার বিজয় পতাকা।

ওয়েবডেস্ক: পাঁচ বছরের লড়াই শেষ! বিশ্ব কাঁপানো ভয়ংকর জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট ওরফে আইসিসের সাম্রাজ্য পতন হল সিরিয়ায়। এমনই ঘোষণা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দু’বছর আগে ইরাকে তাঁদের শেষ ঘাঁটির পতন হয়েছিল। এ বার সিরিয়ায় একই ঘটনা ঘটায় আইসিসের আধিপত্য শেষ হল বলেই মনে করা হচ্ছে।

সিরিয়ার একাধিক শহরের দখল নিজেদের হাতে রেখেছিল আইসিস জঙ্গি সংগঠন। তবে ধীরে ধীরে আইসিসের হাত থেকে দখলমুক্ত হচ্ছিল শহরগুলি। শনিবার সিরিয়ার বাঘুজে আইসিসের সর্বশেষ ঘাঁটিতে বিজয় নিশান উড়িয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস বা এসডিএফ। সেই সঙ্গে তাঁদের দাবি, সিরিয়ায় আইসিসের তথাকথিত খিলাফতেরও পতন হয়েছে।

যদিও এই দাবি এখনই মানতে পারছে না আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। বিবিসি বলছে, সর্বশেষ ঘাঁটি ধ্বংস হলেও আইসিস সিরিয়া থেকে মুছে যায়নি। কারণ, সিরিয়ার একাধিক শহরে এখনও কয়েক হাজার আইসিস জঙ্গি গা ঢাকা দিয়ে রয়েছে। লুকিয়ে চুরিয়ে কাজ করছে আইসিসের স্লিপার সেল। এমন কি সিরিয়া ও ইরাকের পরিধি ছাড়িয়ে নাইজেরিয়া ও ফিলিপিন্সেও সাম্রাজ্য ছড়িয়েছে আইসিস।

আরও পড়ুন লোকসভা ভোটের মুখে বড়োসড়ো ঘোষণা রাহুল গান্ধীর

উল্লেখ্য, চলতি মাসের শুরুর দিকে বাঘুজে আইসিসের শেষ ঘাঁটি ধ্বংস করতে অভিযান শুরু করে এসডিএফ। সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলের এই ঘাঁটি সম্পর্কে দীর্ঘদিন ধরে এসডিএফের কাছে খবর ছিল। তবে সেই অঞ্চলে প্রচুর সাধারণ নাগরিক থাকায় বুঝেসুনে অভিযান চালাতে হয়েছে সেনাবাহিনীকে। এসডিএফের অভিযানের খবর পেয়ে প্রচুর সংখ্যক আইসিস জঙ্গি বাঘুজ ছেড়ে পালিয়েছিল। তবে এসডিএফ দাবি করছে, বাঘুঝে বহু জঙ্গি তাদের হাতে মারা পড়েছে। অনেকে সুড়ঙ্গ থেকে বেরিয়ে সেনাবাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণও করেছে। উল্লেখ্য, ২০১৪ সাল থেকে সিরিয়ায় নিজেদের খিলাফতের ঘোষণা করেছিল আইসিস।

খিলাফতের পতন অবশ্য মেনে নিচ্ছে না আইসিস। তাদের মুখপাত্র আবু হাসান আল মুহাজির অডিও রেকর্ডে জানিয়েছে, আইসিসের খিলাফত এত সহজে মুছে ফেলা সম্ভব নয়। খুব তাড়াতাড়িই নিজেদের আবার গুছিয়ে নিয়ে লড়াইয়ের ময়দানে তারা নামবে বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন