সন্ত্রাস-দমনে ভারতের ‘অসামরিক অভিযান’কে বস্তুতপক্ষে ‘স্বাগত’ জানাল চিন!

0
Lu Kang
চিনা বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র লু কং। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: মঙ্গলবার ভোরে ভারতীয় বায়ুসেনার হানাকে দেশের বিদেশ মন্ত্রকের তরফে ‘সন্ত্রাসবাদ দমনে অসামারিক অভিযান’ হিসাবেই বর্ণনা করা হয়েছে। সেই প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়ে বস্তুতপক্ষে ভারতের পদক্ষেপকে ‘স্বাগত’ জানাল চিন!

এ দিন ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক সচিব বিজয়কেশব গোখলে বলেন, মঙ্গলবারের ঘটনাটি ছিল ‘নন-মিলিটারি প্রিএমটিভ অ্যাকশন’। অর্থাৎ, জঙ্গিকার্যকলাপের সুর্নিদিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতেই ওই অসামরিক অভিযান হয়েছে। গোখলে বলেছেন, ভারতের সেনা গোয়ান্দাদের কাছে খবর ছিল পাকিস্তান ভারতের উপর হামলা চালাতে পারে। সেই সম্ভাব্য হামলা প্রতিরোধের উদ্দেশেই ভারতের এই সেনা অভিযান।

ভারতের তরফে এমন মন্তব্য পাওয়ার পর চিনা বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র লু কং জানিয়েছেন, “ভারত এবং পাকিস্তান দক্ষিণ এশিয়ার দু’টি গুরুত্বপূর্ণ দেশ। এই দুই দেশের পারস্পরিক সৌহার্দ্য সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ার শান্তি এবং স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে সহায়ক”। তিনি বলেন, “আমরা আশা করব, এই দুই দেশেই ‘সংযম’ দেখাবে এবং নিজেদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে মজবুত করবে”।

বেজিংয়ে বিদেশ মন্ত্রকের সভায় এই বক্তব্য পেশ করেন লু। তিনি ভারতের অসামরিক অভিযান প্রসঙ্গে বলেন, “সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করা সারা বিশ্বের দায়। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে এ ব্যাপারে আমাদের একে অপরকে সহযোগিতা করাই কাম্য”।

[ আরও পড়ুন: জঙ্গিঘাঁটি নিকেশ না-হওয়া পর্যন্ত পাকিস্তানকে এক ডলারও দেবে না আমেরিকা: নিকি হ্যালে ]

একই সঙ্গে লু সোমবার চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং য়াই এবং পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশির বৈঠকের কথা উল্লেখ করে বলেন, “অঞ্চলের শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষার স্বার্থে ভারত-পাকিস্তান উভয় দেশকেই একে অপরকে সহযোগিতা করতে হবে”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন