sweden

ওয়েবডেস্ক: ভগবান ‘লিঙ্গ নিরপেক্ষ’, তাই কোনো ভাবেই তাঁকে এখন থেকে ‘লর্ড’ বা ‘হি’ বলে সম্বোধন করা যাবে না। ভক্তদের কাছে এমনই অভিনব আর্জি জানাল সুইডেনের প্রধান গির্জা।

গির্জায় কী ভাবে প্রার্থনা করা হবে সে ব্যাপারে ৩১ বছরের পুরোনো একটি পুস্তিকা রয়েছে সুইডেনের ‘ইভানজেলিকান লাথেরাল’ গির্জার। সেই পুস্তিকা সংশোধন করার ব্যাপারে গত আটদিন ধরে বৈঠক করেছে গির্জা কর্তৃপক্ষ। সেই বৈঠকের পরেই নতুন এই নিয়ম তৈরি করা হয়। সামনের বছর ২০ মে থেকে এই নিয়ম কার্যকর করা হবে।

এক কোটি জনসংখ্যার সুইডেনে, এই গির্জারই ভক্ত সংখ্যা প্রায় ৬১ লক্ষ। এই গির্জার প্রধান একজন মহিলা, আর্চবিশপ আন্তে জ্যাকেলেন। তাঁর কথায়, “ধর্মতত্ত্বের ভিত্তিতে আমরা জানি, ভগবানকে কোনো লিঙ্গের চৌহদ্দিতে আটকে রাখা যায় না। ভগবান মানুষ নন।”

এই অভিনব পরিবর্তনের অবশ্য সমালোচনাও হয়েছে। সুইডেনের একটি বিশ্ববিদ্যলয়ের ধর্মতত্ত্বের এক অধ্যাপক বলেন, “এই সিদ্ধান্ত ট্রিনিটি ডক্ট্রিন বিরুদ্ধ।” উল্লেখ্য, এই ট্রিনিটি ডক্ট্রিন খ্রিষ্টধর্মের মানুষদের কাছে পবিত্র। এই ডক্ট্রিনে বলা হয়েছে, তিনটি অস্তিত্ব নিয়ে সৃষ্টি হয়েছেন ভগবান, বাবা, ছেলে (যিশু খ্রিষ্ট) এবং আত্মা।

তাঁর কথায়, “সুইডেনের প্রধান গির্জা যদি ধর্মতত্ত্বের ঐতিহ্য না মানে, তাহলে এর থেকে খারাপ আর কিছু হতে পারে না।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here