Facebook

ওয়েবডেস্ক: হ্যাকাররা কি আপনার সর্বশেষ ফেসবুক অ্যাক্টিভিটি অথবা আপনাকে ট্যাগ করা কোনো পার্টি ফটো দেখতে সক্ষম হয়েছে? ফেসবুকের মতে, দুর্ভাগ্যজনক উত্তর “হ্যাঁ”।

শুক্রবার এই সোশ্যাল নেটওয়ার্ক জানিয়েছে, গত সপ্তাহ দুয়েক আগে অনুমান করা হয়েছিল প্রায় পাঁচ কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারীর সুরক্ষা বিঘ্নিত হতে পারে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সেই হিসাবকে নামিয়ে নিয়ে এসে তিন কোটিতে ঠেকানো সম্ভব হয়েছে। বাড়তি সুসংবাদ হিসাবে সংস্থা বলেছে, হ্যাকাররা কিন্তু কারও পাসওয়ার্ড বা আর্থিক বিষয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ এবং সংবেদনশীল তথ্য অ্যাক্সেস করতে পারেনি। এবং এই পুরো ঘটনায় তৃতীয় পক্ষের কোনো অ্যাপ্লিকেশন প্রভাব ফেলতে পারেনি।

তবে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের একাংশ এখনও পর্যন্ত সুরক্ষা বিঘ্নিত হওয়ার আশঙ্কায় ভুগছেন। এ ব্যাপারে লিঙ্গ, রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস, বসবাসকারী শহর ইত্যাদি বিষয়গুলির সেটিংস নিয়ে তাঁরা ভাবিত।

ফেসবুক জানিয়েছে, তারা জানার চেষ্টা করছে ব্যবহারকারীরা আদতে কোন কোন বিষয়গুলি অ্যাক্সেস করেছিলেন। তবে হ্য়াকাররা কী অ্যাক্সেস করেছিল, সেটা কিন্তু ফেসবুকের জানার বাইরে। এ ব্যাপারে শুধু মাত্র কিছু সন্দেহ জনক ই-মেলের উপর ভিত্তি করে ফেসবুক এগোচ্ছে। পাশাপাশি জানানো হয়েছে, যে সমস্যাটি হয়েছিল, তা মিটে গিয়েছে।

এ ব্য়াপারে জানানো হয়েছে, ফেসবুকের পাতাতেই তদন্ত সংক্রান্ত কিছু প্রাথমিক তথ্য সরবরাহ করা হচ্ছে। যেমন, “আমার ফেসবুক অ্য়াকাউন্টটির সুরক্ষা কি বিঘ্নিত হয়েছিল” – এমন জাতীয় প্রশ্নের উত্তর ফেসবুকের মাধ্যমেই ব্যবহারকারীকে জানানো হচ্ছে।

এ ছাড়া নিজের অ্যাকাউন্ট  লগ ইন করে পাতার উপরের দিকে থাকা নীল প্যানেলের কোনায় থাকা অ্যারোতে ক্লিক করে মেনুতে গিয়ে সেটিংস ক্লিক করুন৷ এর পর সিকিউরিটি অ্যান্ড লগিন ক্লিক করলেই দেখতে পারেন কোন কোন সিস্টেম থেকে ওই অ্যাকাউন্ট অ্যাকসেস করা হয়েছে৷ যদি কোনও সিস্টেম থেকে নিজে অ্যাকসেস করে না থাকেন তাহলেই সতর্ক হয়ে যান৷ সঙ্গে বদলে নিন ওই অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড।

অন্য দিকে যদি হ্যাকাররা আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ঢুকে পড়ে, তা হলে তারা পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে দিতে পারে। সে ক্ষেত্রে ফরগেট পাসওয়ার্ডে গিয়ে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে হবে। তখন কিন্তু আপনার দেওয়া নির্দিষ্ট মোবাইল নম্বর বা ই-মেলের মাধ্যমেই ভেরিফিকেশন হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন