rodrigo duterte

ওয়েবডেস্ক: বিদেশ বললেই আমাদের চোখের সামনে দারিদ্র্যমুক্ত যে ঝলমলে ছবিটা ভেসে ওঠে, বাস্তব কিন্তু আদপেই তেমনটা নয়। কোনো দেশের প্রেসিডেন্টের কথা বললেই যে বিলাসবহুল জীবনযাত্রার কথা আমাদের মাথায় সাধারণত আসে, ছবিটা কিন্তু পৃথিবীর সব জায়গায় সে রকম নয়। অন্তত ফিলিপাইনে তো নয়ই!

সেই জন্যই সম্প্রতি দাবি তুলেছেন দেশের প্রেসিডেন্ট রডরিগো দুতের্তে- তাঁর বেতন বাড়াতে হবে! রীতিমতো অভিযোগের সুরেই জানিয়েছেন তিনি যে বেতন হিসাবে যে টাকাটা পান, তা মোটেও যথেষ্ট নয়।

তা, ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্টের বেতন কত হতে পারে বলে ধারণা করা যায়?

Rodrigo Duterte

মাত্র ২০ লক্ষ ফিলিপাইন পিসো! ভারতীয় মুদ্রায় সেই টাকার অঙ্কটা দাঁড়ায় মেরে-কেটে আড়াই লক্ষ!

“আমি কাজ করতে করতে ক্লান্ত হয়ে পড়ছি! অথচ আপনারা জানেন- আমি কত বেতন পাই? মাত্র ২০ লক্ষ পিসো! তা-ও খাদ্যভাতা তার অন্তর্ভুক্ত নয়। এ দিকে আমার দুই স্ত্রী…” বক্তব্য এই জায়গাতেই শেষ করেছেন দুতের্তে ইলোইলোর ক্যাম্প জেনারেল আদ্রিয়ানো হার্নান্দেজের এক সভায়।

খবর বলছে, ২০১৬ সালে ফিলিপাইনের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বেনিগনো অ্যাকুইনো সিভিলিয়ান এবং মিলিটারি কর্মীদের বেতন বাড়ানোর জন্য একটি নির্দেশিকায় দস্তখত করেছিলেন। সেই নিয়ম অনুসারে সামনের বছরের আগে দুতের্তের বেতন বৃদ্ধির কোনো সম্ভাবনাই নেই!

rodrigo duterte

ও দিকে প্রাক্তন স্ত্রী এলিজাবেথ জিমারম্যানকে বিবাহবিচ্ছেদ-ভাতা দিতে বাধ্য বলে মাসে একটা মোটা অঙ্কের টাকা খরচ হয় তাঁর। কম টাকা খরচ হয় না বর্তমান স্ত্রী সিয়েলিতো হানিলেত আভাঞ্চেনার সাধ-আহ্লাদ মেটাতেও!

“তাই বলছি, আমার আদর্শ বেতন, অবশ্যই আমার মতে, যা হওয়া উচিত, রসিকতা না করেই বলছি- ১ মিলিয়ন ৫ হাজার পিসো”, জানিয়েছেন দুতের্তে।

মানে, ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩৬ লক্ষ টাকার কাছাকাছি! কী মনে হয়, একটু বেশিই দাবি করছেন না দুতের্তে?

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন