international campaign to abolish uclear weapons

ওয়েবডেস্ক: এক দিকে যখন ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং কিম জন উনের পরস্পরের বিরুদ্ধে পরমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের হুমকিতে বিশ্ব টালমাটাল, ঠিক তখনই পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের বিপক্ষে প্রচার চালানো এক সংস্থাকে নোবেল শান্তি পুরস্কার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল নরওয়ের নোবেল কমিটি। সংস্থাটির নাম ‘ইন্টারন্যাশনাল ক্যামপেন টু অ্যাবলিশ নিউক্লিয়ার উইপন্‌স’, সংক্ষেপে আইক্যান।

বিশ্বের একশোটি দেশের অসরকারি সংগঠনকে নিয়ে এই সংস্থা কাজ করে বলে জানা গিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় এই সংস্থা যাত্রা শুরু করলেও ২০০৭-এ ভিয়েনায় সরকারি ভাবে এই সংস্থার গোড়াপত্তন হয়। নোবেল কমিটির প্রধান বেরিট রেয়িস অ্যান্ডারসন বলেন, “বর্তমান বিশ্বে পরমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের হুমকির মাত্রা অতীতের তুলনায় অনেক বেশি।”

উল্লেখ্য, গত জুলাইয়ে ১২২টি দেশকে নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জে সাক্ষরিত হয় পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার বিরোধী চুক্তি। কিন্তু সেই চুক্তিকে সই করেনি যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ফ্রান্স, ব্রিটেন, চিন প্রভৃতি পরমাণু অস্ত্রধারী দেশ। বর্তমান আন্তর্জাতিক আবহে এই নোবেল শান্তি পুরস্কার যথেষ্ট তাৎপর্যের বলে মনে করা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here