F-16 jet pakistan
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: কোনো তৃতীয় দেশের বিরুদ্ধে এফ-১৬ জেট ব্যবহার করা যাবে না। পাকিস্তানের সঙ্গে এই জেট সংক্রান্ত চুক্তিতে স্পষ্ট বলে দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু তা সত্ত্বেও এই জেট দিয়েই গত সপ্তাহের বুধবার ভারতের সামরিক ঘাঁটিগুলি লক্ষ্য করে আঘাত হানার চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান।

এফ-১৬-এর এই অপব্যবহার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে প্রমাণ তুলে দিল ভারত। ভারতীয় আধিকারিকদের আশা, এই প্রমাণের ভিত্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসন সঠিক পথে তদন্ত করবে এবং সত্যিটা সামনে আনবে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের থেকে এই জেট কেনার সময়ে তারা পাকিস্তানকে কড়া ভাষায় বলে দিয়েছিল, এই জেট কোনো ভাবেই কোনো তৃতীয় দেশে আঘাত হানার কাজে ব্যবহার করা যাবে না। শুধু মাত্র দেশের ভেতরে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানেই তা ব্যবহার করা যাবে।

তবে গত বুধবারের ওই অভিযানে এফ-১৬ ব্যবহার করার কথা অস্বীকার করেছে পাকিস্তান। আর যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, পাকিস্তানের কাছ থেকে আরও তথ্য তলব করেছে তারা।

আরও পড়ুন বালাকোট ‘অতীত,’ এ বার অন্য পথে পাকিস্তানকে ঘায়েল করার পথে ভারত

উল্লেখ্য, পুলওয়ামার হামলার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের বালাকোটে জইশ শিবির লক্ষ্য করে আঘাত হানে ভারতীয় বায়ুসেনা। তার পরের দিনই পালটা প্রত্যাঘাত করে পাকিস্তান। এফ-১৬ জেট নিয়ে ঢুকে পড়ে ভারতের আকাশসীমায়। সেই জেট থেকে ভারতের মাটিতেই ‘আমরাম’ ক্ষেপণাস্ত্র ফেলে যায় তারা।

ভারতের দাবি, ভারতের সামরিক ঘাঁটিগুলি লক্ষ্য করেই এই অভিযান করার চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান। যদিও সেই দাবি খণ্ডন করে পাকিস্তান। তখন থেকেই ভারত-পাক পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হতে শুরু করে। যুদ্ধের আবহ তৈরি হয়। তবে তার পর থেকে উত্তপ্ত পরিস্থিতি এখন কিছুটা স্বাভাবিকের পথে এসেছে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন