মার্কিন সেনাঘাঁটিতে ফের ভয়াবহ হামলা ইরানের

বাগদাদ: সেনা আধিকারিকের হত্যা যে তারা সহজে মেনে নেবে না, ফের একবার বুঝিয়ে দিল ইরান। রবিবার রাতে ফের একবার মার্কিন সেনাঘাঁটিতে হামলা চালাল তারা।

বাগদাদের উত্তরে আল-বালাদ বায়ুসেনা ঘাঁটিতে পর পর চারটি রকেট হামলার ঘটনা ঘটেছে। এই দিনের হামলায় ইরাকি বায়ুসেনার চারজন কর্মী জখম হয়েছেন বলে সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএফপি জানিয়েছে।

তবে এই ঘাঁটিতে মার্কিন সেনা বিশেষ ছিল না। কারণ ইরানের সঙ্গে সম্প্রতিক তিক্ততার জেরে ও পালটা হামলার আশঙ্কায় এই ঘাঁটি থেকে অধিকাংশ মার্কিন সেনাকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল বলে সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে। উল্লেখ্য, স্থানীয় সরকারকে সহায়তার জন্য ইরাকের বিভিন্ন ঘাঁটিতে বর্তমানে প্রায় ৫,০০০ মার্কিন জওয়ান মোতায়েন আছেন।

গত ৩ জানুয়ারি মার্কিন ড্রোন হানায় ইরানের কুদস বাহিনীর প্রধান কাসেম সুলেইমানিকে হত্যা করা হয়। এর বদলা নিতে ইরান শুরু করে প্রত্যাঘাত। সম্প্রতি ইরাকে দু’টি মার্কিন সেনাঘাঁটিতে এক ডজন মিসাইল হামলা চালায় তেহরান।

আরও পড়ুন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি সোমবার বিরোধী বৈঠকে নেই আরও এক নজরকাড়া নাম

কিছু দিন আগে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতোল্লা আলি খামেনেই হুমকির সুরে বলেছিলেন, “মিসাইল হামলা শুধু আমেরিকার গালে থাপ্পড় ছিল। বদলা এখনও বাকি।” সেই আবহে ইরাকের আরও একটি মার্কিন সেনাঘাঁটিতে হামলার ঘটনা ঘটল।

এই হামলার দায় এখনও কেউ স্বীকার না করলেও সব ঘটনাপ্রবাহ ইরানকেই ইঙ্গিত করছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.