ওয়েবডেস্ক: ভিভিয়ান রিচার্ডসের দেশ আন্টিগা ও বারবুডার ওপর তাণ্ডব চালিয়ে পুয়ের্তো রিকোয় আছড়ে পড়ল আতলান্তিকের দানবঝড় ইর্মা। অন্য দিকে ঝড়ের আশঙ্কায় নিরাপদ স্থানে সরতে গিয়ে তীব্র যানজট দেখা দিয়েছে ফ্লোরিডার সড়কে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার গভীর রাত, অর্থাৎ ভারতীয় সময়ে বুধবার সকালে আন্টিগা ও বার্বুডায় আছড়ে পড়ে ইর্মা। সেখান থেকে এগিয়ে বুধবার গভীর রাতে পুয়ের্তো রিকোয় আঘাত হানে সে। কিন্তু ঝড়ের দাপটে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত বার্বুডা দ্বীপপুঞ্জ।

দেশের প্রধানমন্ত্রী গাস্টন ব্রাউনের কথায় মাত্র ১৮০০ জনসংখ্যার দ্বীপ বার্বুডা এই ঝড়ের তাণ্ডবে ‘সম্পূর্ণ ধ্বংস’ হয়ে গিয়েছে। ভেঙে পড়েছে প্রায় ৯০ শতাংশ বাড়িঘর। বার্বুডায় এক জনের মৃত্যুর কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে আন্টিগা দ্বীপে প্রচুর গাছ পড়ে যাওয়া ছাড়া বিশেষ ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

আন্টিগা ও বার্বুডার পরে ঝড় আছড়ে পড়ে পুয়ের্তো রিকোয়। রাজধানী সান খুয়ানে প্রচুর গাছ ভেঙে পড়েছে। পুয়ের্তো রিকোর গভর্নর রিকার্দো রোসেয়ো বলেন, “এ রকম ঝড় আমরা আগে কখনও দেখিনি। প্রচুর ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছি।” তবে ক্ষয়ক্ষতি বার্বুডার থেকে কম হবে, সে কথাও বলেন রোসেয়ো। পুয়ের্তো রিকোর প্রায় অর্ধেক বাড়িই এখন বিদ্যুৎহীন।

ইর্মার সম্ভাব্য গতিপথে এ বার পড়তে চলেছে কিউবা। দেশে মধ্যাংশ এবং পূর্বাংশের জন্য ঝড়ের সতর্কতা জারি করেছে কিউবা সরকার। সম্ভাব্য দুর্যোগের আশঙ্কায় দোকান থেকে সব জিনিসপত্র আগেভাগেই সংগ্রহ করে নিচ্ছেন রাজধানী হাভানার জনগন।

florida irma
যানজট। সৌজন্য সিএনএন

কিউবার পর এই দানবঝড়ের কবলে পড়বে ফ্লোরিডা। আবহাওয়াবিদদের আশঙ্কা শনিবার-রবিবারের মধ্যেই ফ্লোরিডা ছোঁবে এই ঝড়। প্রশাসনের নির্দেশ মেনে ইতিমধ্যেই ফ্লোরিডার পূর্ব উপকূল থেকে নিরাপদ স্থানে সরতে শুরু করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এখানেই দেখা দিয়েছে সমস্যা। বিপুল যানজট তৈরি হয়েছে সড়কে। ফ্লোরিডার পূর্ব উপকূলের জনসংখ্যা ষাট লক্ষ। সব মানুষকে যদি নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়, তা হলে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে বৃহত্তম ‘মাস এভাকুয়েশন’ হবে এটি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here