কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে জোড়া ধাক্কা নিরাপত্তা পরিষদের

0
Imran Khan and shah mahmood qureshi

ওয়েবডেস্ক: কাশ্মীর ইস্যুতে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে রীতিমতো মুখ পুড়ল পাকিস্তানের। একই সঙ্গে কূটনীতিকদের মন্তব্য, পাকিস্তানের পাশে দাঁড়িয়ে নিরাপত্তা পরিষদের কাছে রুদ্ধদ্বার বৈঠকের আর্জি জানানো চিনের নাক-ও কাটা গেল গত শুক্রবারের বৈঠকে।

নিরাপত্তা পরিষদের কাছে পাকিস্তানের আর্জি ছিল মূলত দু’ট‌ি। প্রথমত, রাষ্ট্রসঙ্ঘ কাশ্মীর ইস্যুতে হস্তক্ষেপ করুক এবং দ্বিতীয়ত, ভারতের ৩৭০ ধারা বিলোপকে এক্তিয়ারভুক্ত ঘোষণা করা হোক। দু’টি আর্জিতেই কার্যত আমল দিল না নিরাপত্তা পরিষদ।

রাষ্ট্রসঙ্ঘের প্রতিনিধি জানান, কাশ্মীর ভারত এবং পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক সমস্যা। সিমলা চুক্তি মেনে দুই দেশ আলোচনা করে এই সমস্যা মিট‌িয়ে নিক। অন্য দিকে ৩৭০ ধারা বাতিল নিয়ে কোনো মতামতই দেয়নি নিরাপত্তা পরিষদ।

জম্মু-কাশ্মীর থেকে ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ বিলোপের পরই রাষ্ট্রসঙ্ঘের দ্বারস্থ হয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু সেখানে কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এর পরে নিরাপত্তা পরিষদে আর্জি জানায় পাকিস্তান। সেই আবেদন জোরালো করতেই ২৪ ঘণ্টার মধ্যে একই আবেদন জানায় চিন।

চিনের আর্জিতে সাড়া দিয়ে গত শুক্রবার রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসে রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ। নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রপুঞ্জের কার্যালয়ে স্থানীয় সময় সকাল ১০টা অর্থাৎ ভারতীয় সময়ে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় বলে জানা গিয়েছে। ১৯৬৫ সালের পর কাশ্মীর নিয়ে দ্বিতীয় বার রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসল নিরাপত্তা পরিষদ।

প্রসঙ্গত, নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য বা পি-৫-এর সদস্য দেশ চিন। তবে সে যাইহোক না কেন, ওই ভারতীয় কূটনীতিকরা আগেই দাবি করেছিলেন, “সাধারণত, কোনো অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে কোনো রাষ্ট্রই আপত্তি জানায় না কারণ এখানে কোনো আনুষ্ঠানিক ফলাফল হয় না, রেজোলিউশন হয় না, কোনো ভোট হয় না এবং কোনো রেকর্ডও রক্ষিত হয় না”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here