সম্পর্কের চরম অবনতির আবহে আজ মুখোমুখি জো বাইডেন, ভ্লাদিমির পুতিন

    আরও পড়ুন

    খবর অনলাইন ডেস্ক: দীর্ঘ প্রত্যাশিত বৈঠকে যোগ দিয়েছেন আমেরিকা এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট। দু’দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে চরম অবনতির আবহেই বুধবার জেনেভার লুইস লেকসাইড সুইস ম্যানসনে বৈঠক করছেন জো বাইডেন (Joe Biden) এবং ভ্লাদিমির পুতিন (Vladimir Putin)।

    কূটনৈতিক মহলের মতে, দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধান এমন এক সময়ে বৈঠকে সম্মত হয়েছেন, যখন তাঁদের দেশগুলির মধ্যে সম্পর্ক কার্যত সর্বকালের তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। সংবাদ সংস্থা রয়টার্স এক আধিকারিকের মন্তব্য উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, দুই নেতার মধ্যে এই বৈঠকটি চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা ধরে চলতে পারে।

    Loading videos...

    শেষ কয়েক মাস ধরেই দুই দেশ একে অন্যকে নিশানা করে তীব্র বাক্যবাণ নিক্ষেপ করে চলেছে। সব মিলিয়ে উত্তেজনাপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজ করছে দুই দেশের মধ্যে। আমেরিকার স্বার্থে ঘা দিতে রাশিয়া ভিত্তিক হ্যাকাররা সাইবার হানা চালিয়েছে বলে জোরাল অভিযোগ করে আসছেন বাইডেন। এ ব্যাপারে তিনি রাশিয়ার হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন একাধিক বার। আবার রাশিয়ার শীর্ষস্থানীয় বিরোধী নেতার কারাবাস এবং আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পুতিনের হস্তক্ষেপের অভিযোগ রয়েছে।

    - Advertisement -

    দুই দেশের এই বৈরি সম্পর্কে আরও যুক্ত হয়েছে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের একটি মন্তব্য। গত মার্চে এক সাক্ষাৎকারে বাইডেন তাঁর সাক্ষাৎকার গ্রহণকারীর সঙ্গে একমত হন যে, ভ্লাদিমির পুতিন আসলে ”একজন খুনি”। পাশাপাশি এমনটাও জানা যায়, বাইডেন নিজেই এ রকম একটি বৈঠকের অনুরোধ জানিয়েছেন।

    পুতিনও কম যান না। ৬ জানুয়ারি আমেরিকার কংগ্রেসের ক্যাপিটল বিল্ডিংয়ে নজিরবিহীন সংঘর্ষের ঘটনাকে সামনে রেখে ইঙ্গিতবাহী মন্তব্য করেন পুতিন। পাশাপাশি জোরের সঙ্গে দাবি করেছেন, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা যা-ই দাবি করুক না কেন, রাশিয়া থেকে আমেরিকায় সাইবার হানার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

    এ দিন দুই নেতা মুখোমুখি হলেও উভয় পক্ষের প্রত্যাশার বহরও সীমিত বলেই ধারণা করছেন কূটনীতিকরা। কারণ, বৈঠকে যোগ দেওয়ার দিন তিনেক আগে বাইডেন স্পষ্টতই জানিয়ে দেন, “আমি রাশিয়ার সঙ্গে কোনো সংঘর্ষে যাচ্ছি না। কিন্তু রাশিয়া যদি ক্ষতিকর কাজকর্ম চালিয়ে যায়, তার জবাব দেব আমরাও”।

    সূত্রের খবর, দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের পাশাপাশি ইউক্রেন, বেলারুশ, কৌশলগত স্থিতিশীলতা, আঞ্চলিক দ্বন্দ্ব-সংঘাত, অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ, করোনা মহামারি, জলবায়ু পরিবর্তন ইত্যাদি বিষয় নিয়েও বাইডেন-পুতিনের কথা হতে পারে।

    আরও পড়তে পারেন: ফের গাজায় বিমানহানা চালাল ইজরায়েল

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    - Advertisement -

    আপডেট খবর