মেক্সিকো সিটি: ভয়াবহ ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল মেক্সিকোর দক্ষিণ উপকূল। ভূমিকম্পের ফলে এখনও পর্যন্ত ৩২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাড়িঘর। জারি হয়েছে সুনামি সতর্কতা।

স্থানীয় সময়ে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের কিছু আগে অর্থাৎ ভারতীয় সময়ে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ এই ভূমিকম্পটি হয়। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৮.১। দক্ষিণ মেক্সিকোর চিয়াপাস প্রদেশের পিখিখিয়াপান শহরের ৮৭ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, গভীর সমুদ্রে ভূমিকম্পটির উৎসস্থল ছিল।

মেক্সিকোর ইতিহাসে সব থেকে ধ্বংসাত্মক ভুমিকম্পটি হয়েছিল ১৯৮৫ সালে। এবারের ভূমিকম্পের তীব্রতা ১৯৮৫-এর ভূমিকম্পের থেকেও বেশি বলে জানা গিয়েছে। ভূমিকম্পের ফলে সুনামি সতর্কতা জারি করেছে প্যাসিফিক সুনামি ওয়ারনিং সেন্টার। এখনও পর্যন্ত দেশের উপকূলবর্তী তিন শহর সালিনা ক্রুজ, পুয়ের্তো মেদারো এবং উয়াতালকোয় ০.৭ মিটার উচ্চতার ঢেউ আছড়ে পড়েছে। আগামী তিন ঘণ্টার মধ্যে মেক্সিকো উপকূলে ১০ ফুট উচ্চতার ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে বলে জানিয়েছে সুনামি ওয়ার্নিং সেন্টার।

শুধু মেক্সিকোই নয়, প্রতিবেশী সাতটি দেশ এল সালবাদোর, গুয়াতেমালা, নিকারাগুয়া, কোস্তা রিকা হোন্দুরাস এবং পানামাতেও সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সুদুর ১৪,০০০ কিমি দূরের ফিলিপিন্সের পূর্ব উপকূলেও সুনামির সতর্কতা জারি করেছে সে দেশের সরকার।

ভূমিকম্পটির তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে উৎসস্থল থেকে এক হাজার কিলোমিটার দূরত্বে থাকা সত্বেও রাজধানী মেক্সিকো সিটির বাড়িঘর কেঁপে ওঠে। মূল ভূমিকম্পটির পরবর্তী কম্পনও শুরু হয়েছে দেশে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন