“আমার বা তোমার নয়, আমাদের আমেরিকা,” টুইটে ট্রাম্পকে তোপ মিশেল ওবামার

0

ওয়েবডেস্ক: মার্কিন কংগ্রেসের চার সংখ্যালঘু মহিলা সদস্যের প্রতি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘বর্ণবিদ্বেষী’ মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে এ বার সরব হলেন প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার স্ত্রী মিশেল। একাধিক টুইটের মধ্যে দিয়ে তিনি ট্রাম্পের উদ্দেশে চূড়ান্ত তোপ দাগেন।

নামোল্লেখ না করলেও সব টুইট যে ট্রাম্পের উদ্দেশেই ছিল, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সবার, এই কথা বলে মিশেল টুইটে বলেন, “আমাদের দেশকে মহান বানিয়েছে তার বিচিত্রতা। আমরা এই দেশে জন্মাই বা উদ্বাস্তু হয়ে এই দেশে আশ্রয় খুঁজি, সব ক্ষেত্রেই এই দেশ আমাদের সবার।” এর পর মিশেল লেখেন, “আমাদের মনে রাখা উচিত যে এটা আমার বা তোমার আমেরিকা নয়, এটা আমাদের আমেরিকা।”

গোটা ঘটনার সূত্রপাত গত রবিবার। ওই দিন মার্কিন কংগ্রেসের চার ‘অ-শ্বেতাঙ্গ’ এবং সংখ্যালঘু ডেমোক্র্যাটের নাম না করে টুইটে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘‘যেখান থেকে এসেছেন, সেখানেই ফিরে যান।’’ তা নিয়ে প্রবল সমালোচনা শুরু হয়। নিন্দায় সরব হন রিপাবলিকানরাও। যদিও এর পরেও নিজের অবস্থানে অনড় ছিলেন ট্রাম্প।

টুইটে তিনি বলেন, ‘‘আমাদের দেশ সমাজতান্ত্রিক বা কমিউনিস্ট দেশ হবে না। তাই যাঁরা খুশি নন, চলে যেতে পারেন।’’ মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেন মিত্র দেশ ব্রিটেন এবং কানাডার রাষ্ট্রপ্রধানরা।

এর পর ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ ওঠে। সেই অভিযোগ খারিজ করে তাঁর দাবি, ‘‘আমার শরীরের একটা হাড়েও জাতি বা বর্ণবিদ্বেষ নেই।’’

ট্রাম্পের এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে মার্কিন প্রতিনিধিসভায় একটি নিন্দাপ্রস্তাব আনা হয়। ভোটাভুটিতে সেই নিন্দাপ্রস্তাব পাশ হয়ে যায়। ট্রাম্পের এই মন্তব্যের পর যখন চারিদিকে সমালোচনার সুর, তখন যাবতীয় দোষ তিনি বিরোধী ডেমোক্র্যাটদের ঘাড়ে চাপিয়ে দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.