ইউরোপ, আমেরিকায় দ্রুত ছড়াচ্ছে মাঙ্কিপক্স, জরুরি বৈঠকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

0

নয়াদিল্লি: ইউরোপের বেশ কিছু দেশ এবং উত্তর আমেরিকায় দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে মাঙ্কিপক্স (Monkeypox)। পরিস্থিতি বিবেচনা করে জরুরি বৈঠকের আহ্বান জানাল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)।

মাঙ্কিপক্স হল প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমিত একটি ভাইরাস, যার লক্ষণগুলি গুটিবসন্তের মতোই হলেও চিকিৎসার দিক দিয়ে কম গুরুতর। দ্য টেলিগ্রাফ-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, ভাইরাসের দ্রুত সংক্রমণ মোকাবিলা এবং কার্যকরী ভ্যাকসিনের উপর জোর দিতেই বৈঠকে বসছে হু।

চলতি মাসে বেশ কয়েকটি দেশে মাঙ্কিপক্সের ঘটনা ঘটেছে। গত ৬ মে থেকে ব্রিটেনে এই বিরল ভাইরাসে আক্রান্ত ২০ জনের হদিশ মিলেছে। ফ্রান্স, জার্মানি এবং বেলজিয়ামও শুক্রবার নিজেদের দেশে মাঙ্কিপক্সে আক্রান্তদের চিহ্নিত করেছে।

মারাত্মক নয় মাঙ্কিপক্স

মাঙ্কিপক্স বিরল একটি রোগ। তবে চিকিৎসকদের মতে, মারাত্মক নয়। ইউএস সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)-এর তথ্য অনুযায়ী, মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত ব্যক্তির মুখ ও শরীরে চিকেন পক্সের মতো ফুসকুড়ি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তার আগে ফ্লুর মতো উপসর্গ যেমন জ্বর, পেশিতে ব্যথা এবং টনসিল ফুলতে পারে।

কী ছড়ায় সংক্রমণ

আক্রান্ত ব্যক্তির ত্বকের ক্ষত এবং ড্রপলেট অন্য ব্যক্তির সংস্পর্শে এলে ছড়াতে পারে মাঙ্কিপক্স। একই বিছানা অথবা তোয়ালে-গামছা ব্যবহার করলেও এই রোগ ছড়াতে পারে। যৌনসম্পর্কের সঙ্গেও এই রোগের সংক্রমণ ছড়ানোর যোগ থাকতে পারে। হু-র মতে, সাম্প্রতিক কিছু ঘটনায় দেখা গিয়েছে সমকামী সম্প্রদায়ের মধ্যে এই সংক্রমণ ছড়িয়েছে। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের তরফে খুঁটিয়ে দেখা হচ্ছে, এই রোগ কী ভাবে বাড়ছে?

চিকিৎসা কী ভাবে?

এখনও পর্যন্ত কারও এই রোগে মৃত্যু হয়নি। যাঁদের পক্সের টিকা নেওয়া আছে, তাঁদের ক্ষেত্রে এই রোগ মারাত্মক আকার নেবে না বলেও মত অনেকের। এর আগে সিডিসি জানিয়েছিল, এই রোগের বিশেষ কোনো ওষুধ নেই। তবে এর সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে গুটিবসন্তের টিকা সিডোফোভির, এসটি-২৪৬ এবং ভ্যাকসিনিয়া ইমিউন গ্লোবিউলিন ব্যবহার করা যেতে পারে।

মাঙ্কিপক্স সংক্রান্ত আরেকটি প্রতিবেদন পড়ুন এখানে: একে করোনায় রক্ষা নেই দোসর মাঙ্কিপক্স, এ বার সংক্রমণ নিশ্চিত করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন