বালি (ইন্দোনেশিয়া)  : সামগ্রিক  নিরাপত্তার স্বার্থে ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপের আই গুসটি নগুরাহ রাই বিমানবন্দরের বিমান ওঠানামা আরও একদিনের জন্য বন্ধ রাখা হল। সোমবারের পর মঙ্গলবারও নির্দিষ্ট বিমান বাতিল করা হল। বিমানবন্দরের মুখপাত্র এরি আসানুরহিম বলেন, মঙ্গলবার আসাযাওয়া মিলিয়ে ৪৪০টি বিমান বাতিল হয়েছে।  বুধবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা পর্যন্ত বিমান ওঠানামা বন্ধ রাখা হবে।ফলে  সোমবারের মতো এ দিনও প্রায় সাড়ে ৫৯ হাজার যাত্রী সমস্যায় পড়লেন। ইন্দোনেশিয়ার স্থলপথ পরিবহণ বিভাগের ডিরেক্টর জেনারেল বলেন, আটকে পড়া যাত্রী, পর্যটকদের জন্য একশোটি অতিরিক্ত বাস নামানো হয়েছে, এই বাস যাত্রীদের বিমানবন্দর থেকে খেয়াঘাট ও স্টেশন পর্যন্ত নিয়ে যাবে। মাউন্ট আগুং আগ্নেয়গিরির ধোঁয়া দক্ষিণ ও দক্ষিণপশ্চিম দিকে ছড়িয়ে পড়েছে। বিমান যাতায়াতের পথ প্রায় ঢেকে দিয়েছে। প্রায় ৩০ হাজার মিটার উঁচু পর্যন্ত ছাই, ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়েছে।

ভারতের বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ টুইটে বলেন, পরিস্থিতির উপর তিনি নজর রেখেছেন। ভারতের কনস্যুলেট বালিতে আটকে পড়া ভারতীয়দের জন্য একটি হেল্প ডেস্কের ব্যবস্থা করেছে।

 

স্থানীয় এক গ্রামবাসী পুতু সুলাসমি বলেন, সেপ্টেম্বরে সতর্কতা জারির পর তিনি, তাঁর স্বামী আর অন্যান্য পরিজন ঘর ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন। তার পর সপ্তাহ খানেক হয়েছে আবার ফিরে এসেছেন। তিনি বলেন, এটা এখনই উদ্গীরণ করুক, নচেৎ একটা টানা পোড়েন চলতে থাকবে। তবে মনে মনে তাঁরা মেনেই নিয়েছেন যে প্রকৃতির এই ধ্বংস লীলায় তাঁদের বাড়ি ধ্বংস হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন : আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত, চরম সতর্কতা, বালি বিমানবন্দরে বাতিল ৪৪৫ বিমান