Connect with us

বিজ্ঞান

রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিনে সাত জনের মধ্যে এক জনের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া!

এখনও পর্যন্ত ১৪ শতাংশ স্বেচ্ছাসেবীর মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া!

Published

on

ছবি: আনপ্ল্যাশ থেকে

খবর অনলাইন ডেস্ক: বিশ্বের মধ্যে রাশিয়া প্রথম দেশ, যারা করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিষেধক বাজারে নিয়ে এসেছে। তবে এই ভ্যাকসিনের প্রয়োগে দেখা গিয়েছে, সাত জনের মধ্যে এক জনের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিচ্ছে।

গত বুধবার জানা যায়, ভারতের ডা. রেড্ডি’জ ল্যাবরেটরিজকে ১০ কোটি ডোজ করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন (coronavirus vaccine) সরবরাহ করবে রাশিয়ার সভরেন ওয়েলথ ফান্ড। দেশে তৈরি করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন ‘স্পুটনিক-ফাইভ’ সরবরাহ নিয়ে এই সিদ্ধান্তের সরকারি ভাবে ঘোষণা করে রাশিয়া। বিস্তারিত দেখুন এখানে: ভারতে ডা. রেড্ডি’জ ল্যাবরেটরিজকে করোনা ভ্যাকসিন বিক্রি করবে রাশিয়া!

১৪ শতাংশ স্বেচ্ছাসেবীর মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

রাশিয়ার তৈরি ভ্যাকসিন সাত জনের মধ্যে এক জনের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করছে বলে সেখানকার সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। একই সঙ্গে বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছেন রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরশখো।

মস্কো টাইমস তাঁর বক্তব্য উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, যাঁদের এই ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছিল, তাঁদের মধ্যে ১৪ শতাংশের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে।

তবে এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলি মৃদু। এবং বিশ্বের অন্যান্য ভ্যাকসিনগুলির তুলনায় স্পুটনিক-ফাইভ তুলনামূলক ভাবে নিরাপদ এবং কার্যকরী।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলি কী?

স্বেচ্ছাসেবীদের মধ্যে যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গিয়েছে, তা খুবই মৃদু। এগুলিকে একাংশের চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা ভ্যাকসিনের ‘রিঅ্যাক্টোজেনিক’ প্রভাব হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তাঁদের মতে, ভ্যাকসিন নেওয়ার পর এ ধরনের হালকা অস্বস্তি তৈরি হয়ে থাকে। উপসর্গগুলির মধ্যে কয়েকটির ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে জ্বর, সর্দি, পেশি ব্যথা এবং বেদনা।

রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী এই উপসর্গগুলিকে স্বাভাবিক হিসেবেই উল্লেখ করে জানিয়েছেন, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কোন স্তরে পৌঁছাচ্ছে, তা পর্যবেক্ষণে রাখা হচ্ছে।

রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিন কতটা নিরাপদ?

Corona Vaccine

রাশিয়ার চিকিৎসক, মহামারি বিশেষজ্ঞ এবং বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা ভ্যাকসিনের সুরক্ষা এবং কার্যকারিতা নির্ধারণে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

মাথায় রাখতে হবে, এই ভ্যাকসিন শুধুমাত্র সুস্বাস্থ্যের অধিকারী স্বেচ্ছাসেবকদের শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে। ভ্যাকসিনটি বয়স্ক অথবা শিশুদের উপর কী ভাবে কাজ করবে, তা এখনও প্রমাণিত নয়।

আপনার কি উদ্বেগের কারণ রয়েছে?

এই প্রশ্নের উত্তর মিলবে ভ্যাকসিনটি ভারতে পৌঁছানোর পর। সে ক্ষেত্রে যদি হালকা উপসর্গও দেখা দেয়, তা হলে সমস্ত ক্ষেত্রের মানুষের জন্য এই ভ্যাকসিনের প্রয়োগ নিয়ে উদ্বেগ থেকেই যেতে পারে।

আরও পড়তে পারেন: আগামী বছরের শুরুতেই বাজারে কোভিড-টিকা: কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন

ভারতে ৬০ বছরের মানুষের উপস্থিতি প্রায় ১২ শতাংশ। একই সঙ্গে তাঁদের বড়ো অংশ রক্তচাপ, ক্যানসার অথবা ডায়াবেটিসের মতো রোগগুলিতে আক্রান্ত। তবে ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের চূড়ান্ত ফলাফলে কী সিদ্ধান্ত উঠে আসে, সেটাই দেখার।

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

বিজ্ঞান

বিনা ঝক্কিতে করোনা ধরবে ‘ফেলুদা’, বলল আইসিএমআর

‘ফেলুদা’য় করোনা পরীক্ষার জন্য নতুন করে অনুমতি নিতে হবে না ল্যাবরেটরিগুলিকে!

Published

on

করোনার নমুনা পরীক্ষা। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ (ICMR) ল্যাবরেটরিতে সারস-কোভ -২ (SARS-CoV-2) শনাক্তকরণের জন্য ফেলুদা (Feluda) পেপার স্ট্রিপ ব্যবহারে একটি নির্দেশিকা জারি করেছে। সিআরআইএসপিআর-ক্যাস ৯ ( CRISPR-Cas9) প্রযুক্তির ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে এই ফেলুদা পেপার স্ট্রিপ।

কোভিড-১৯ (Covid-19)-এর কারণ সার্স-কোভ-২ শনাক্তকরণে ফেলুদা পেপার স্ট্রিপের মাধ্যমে নমুনা পরীক্ষা করা যায়। এই পরীক্ষায় অনুমোদন দিয়েছে দেশের ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (DCGI)।

আইসিএমআর জানিয়েছে, দেশের যে ল্যাবরেটরিগুলিতে ইতিমধ্যেই করোনা নমুনা পরীক্ষা চলছে, সেখানে ফেলুদা ব্যবহার করে নমুনা পরীক্ষার জন্য নতুন করে অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন নেই।

আইসিএমআর অনুমোদিত সরকারি এবং বেসরকারি ল্যাবগুলি যদি সিআরআইএসপিআর পদ্ধতিতে পরীক্ষা করতে চায়, তা হলে তাদের আর নতুন করে অনুমতি নিতে হবে না।

নির্দেশিকায় আইসিএমআর বলেছে, এই পদ্ধতিটি সার্স-কোভ-২ ভাইরাসের স্ট্রেন চিহ্নিতকরণের কাজ করে। পরীক্ষা পরিচালনার জন্য এখানে কিউপিসিআর (qPCR) মেশিনের পরিবর্তে একটি থার্মাল সাইকেলার (Thermal Cycler) ব্যবহার করা হয়। নির্মাতাদের দাবি অনুযায়ী, এই পদ্ধতিতে নমুনা পরীক্ষার ফলাফল মিলে যাওয়ার পর আর আরটি-পিসিআর (RT-PCR) পদ্ধতিতে পরীক্ষা করানোর প্রয়োজন নেই।

সঠিক ফলাফল

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন সম্প্রতি জানান, ইনস্টিটিউট অব জিনোমিক্স অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটিভ বায়োলজি (IGIB)-তে পরীক্ষা চলাকালীন দু’হাজারেরও বেশি রোগীর পরীক্ষার ভিত্তিতে এবং বেসরকারি ল্যাবগুলিতে পরীক্ষার ভিত্তিতে এই পরীক্ষাগুলিতে ৯৮ শতাংশ সঠিক ফলাফল দেখা গিয়েছে।

তিনি বলেন, আইটিএমআর-এর বর্তমান আরটি-পিসিআর কিটে পরীক্ষার ক্ষেত্রে মানদণ্ড অনুযায়ী ৯৯ শতাংশ সঠিক ফলাফল পাওয়া যায়।

কী এই ফেলুদা?

একটি বিশেষ ভাবে তৈরি‘পেপার স্ট্রিপ’এর মাধ্যমে কোনো ব্যক্তি কোভিড আক্রান্ত কি না, তা কয়েক মিনিটেই চিহ্নিত করতে পারে এই টেস্ট কিট। সত্যজিৎ রায়ের বিখ্যাত গোয়েন্দা চরিত্র ‘ফেলুদা’র নামেই এটির নামকরণ করা হয়েছে। গত ১৯ সেপ্টেম্বর এই টেস্ট কিটের বাণিজ্যিক ভাবে ব্যবহারের অনুমতি দিল ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (DCGI)।

এটি তৈরি করেছেন দুই বাঙালি বিজ্ঞানী শৌভিক মাইতি ও দেবজ্যোতি চক্রবর্তী। দু’জনেই কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ-এর ইনস্টিটিউট অব জেনোমিকস অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটিভ বায়োলজি (CSIR-IGIB)-তে কর্মরত।

আইজিআইবি-র ডিরেক্টর অনুরাগ আগরওয়াল আগেই জানান, এটার কাজ একটা সাধারণ রিয়েল টাইম রিভার্স ট্রান্সক্রিপশন-পলিমেরেজ চেন রিঅ্যাকশনের (RT-PCR) মতোই শুরু হয়, যা রাইবোনিউক্লিক অ্যাসিড (RNA)-এর এক্সট্রাকশন এবং ডিওক্সাইরিবোনিউক্লিক অ্যাসিডে (DNA) রূপান্তরিত হয়।

কী ভাবে কাজ করে?

প্রযুক্তিটি জিনের মধ্যে ডিএনএর নির্দিষ্ট সিকোয়েন্সগুলি শনাক্ত করতে পারে। এতে এক ধরনের এনজাইম ব্যবহৃত হয়।

উদ্ভাবক বিজ্ঞানীদের দাবি, খুব কম সময়ের মধ্যে এটি ভাইরাসের জিনগত উপাদান শনাক্ত করতে সক্ষম। এটি আরটি-পিসিআর পরীক্ষার বিকল্প। অত্যন্ত কম সংখ্যক ভাইরাল নিউক্লিক অ্যাসিড (কম ভাইরাল আরএনএ) পাশাপাশি একক নিউক্লিয়োটাইড প্রকরণ শনাক্ত করতে সক্ষম।

Continue Reading

দেশ

ভারত বায়োটেকের ‘কোভ্যাকসিন’কে তৃতীয় দফার পরীক্ষার জন্য ছাড়পত্র

১৮ বছরের বেশি বয়সি সাড়ে ২৮ হাজার স্বেচ্ছাসেবককে নিয়ে তৃতীয় দফার পরীক্ষা চলবে।

Published

on

covaxin

খবরঅনলাইন ডেস্ক: কোভ্যাকসিন (Covaxin) টিকার তৃতীয় দফার পরীক্ষা (phase 3 trial) চালানোর অনুমতি পেল ভারত বায়োটেক (Bharat Biotech)। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ-এর (আইসিএমআর, ICMR) সহযোগিতায় এই টিকা তৈরি করছে ভারত বায়োটেক।

হায়দরাবাদ ভিত্তিক এই টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা তাদের কোভিড ১৯ (COVID 19) টিকার তৃতীয় দফা ট্রায়ালের জন্য অনুমতি চেয়ে গত ২ অক্টোবর ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়ার (ডিজিসিআই, DCGI) কাছে আবেদন করেছিল।

ওই আবেদনপত্রে ভারত বায়োটেক বলেছে, ১৮ বছরের বেশি বয়সি সাড়ে ২৮ হাজার স্বেচ্ছাসেবককে নিয়ে তাদের তৃতীয় দফার পরীক্ষা চলবে। ১০টি রাজ্যের ১৯টি জায়গায় এই পরীক্ষা চালানো হবে। ওই সব জায়গার মধ্যে রয়েছে দিল্লি, মুম্বই, পটনা, লখনউয়ের মতো শহর।

ভারত বায়োটেকের কোভ্যাকসিন ছাড়াও জাইডাস ক্যাডিলা লিমিটেডও (Zydus Cadila Ltd.) একটি কোভিড ১৯ (COVID 19) টিকা তৈরি করছে। সেই টিকা এখন মানবশরীরে দ্বিতীয় দফার ট্রায়ালে রয়েছে।

অ্যাস্ট্রাজেনেকার (AstraZeneca) সঙ্গে হাত মিলিয়ে পুনের সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া (Serum Institute of India) অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভাবিত যে কোভিড ১৯ টিকা তৈরি করছে, ভারতে তারও দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার পরীক্ষা চলছে।

গত মাসে এক রিপোর্টে ভারত বায়োটেক বলেছিল, প্রাণীর উপরে তাদের টিকার পরীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে, মারাত্মক ছোঁয়াচে করোনাভাইরাসের (coronavirus) বিরুদ্ধে শক্তিশালী প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে পারে তাদের তৈরি টিকা।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

এক দিনে ২৪ হাজার সক্রিয় রোগী কমল ভারতে, দৈনিক সংক্রমণের হার চার শতাংশের নীচে  

Continue Reading

বিজ্ঞান

করোনাভাইরাসের বড়োসড়ো মিউটেশন হচ্ছে না ভারতে, ব্যাপারটা আসলে কী?

মিউটেশন হলে কী হবে? মিউটেশন না হলেই বা কী হবে?

Published

on

coronavirus

খবর অনলাইন ডেস্ক: কোভিড-১৯ পরিস্থিতি পর্যালোচনায় উচ্চ-পর্যায়ের বৈঠকে যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানান, “ভারতে সে ভাবে করোনাভাইরাসের কোনো বড়োসড়ো মিউটেশন হচ্ছে না”। ব্যাপারটা আসলে কী?

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আইসিএমআর এবং ডিপার্টমেন্ট অব বায়োটেকনোলজি (ডিবিটি) পরিচালিত ভারতে সার্স-কোভ-২ ভাইরাসের জিনের উপর দু’টি সর্বভারতীয় সমীক্ষায় প্রমাণিত হয়েছে, ভাইরাসটি জিনগত ভাবে স্থিতিশীল এবং ভাইরাসে কোনো বড়োসড়ো রূপান্তর ঘটেনি”।

মিউটেশন হলে কী হবে?

মিউটেশন সাধারণত কোনো ভাইরাসের পরিবর্তিত হওয়ার বৈশিষ্টকে নির্দেশিত করে। ভাইরাস নিজের প্রতিলিপি তৈরির পরে কিছু নতুন স্ট্রেনের বিকাশ ঘটাতে পারে, এই পরিবর্তিত অবস্থাকেই ভাইরাসের মিউটেশন বলে উল্লেখ করা হয়।

কিছু ক্ষেত্রে নতুন স্ট্রেনগুলি কম কার্যকর হতে থাকে এবং তাই শীঘ্রই মারা যায়। অন্যদিকে আরও শক্তিশালী স্ট্রেনে ভাইরাসের দ্রুত বিস্তার ঘটে।

শনিবার করোনাভাইরাস সংক্রমণ এবং সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের পর্যালোচনার ওই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সার্স-কোভ-২ ভাইরাসের জিন নিয়ে সর্বভারতীয় স্তরে সম্প্রতিক ওই দু’টি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, এই ভাইরাসের জিনের চরিত্র খুব একটা বদলাচ্ছে না। অর্থাৎ, মিউটেশন হচ্ছে না।

মিউটেশন না হলে কী হবে?

মিউটেশন না হলে ভাইরাসের শক্তি ক্রমশ কমে যাবে। অন্যদিকে, মিউটেশন কমে যাওয়ার অর্থ- সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের কাজও পুরোমাত্রায় বজায় থাকবে। জিনগত ভাবে ভাইরাসের চরিত্র যদি স্থিতিশীল থাকে, তা হলে উপযুক্ত ভ্যাকসিনের মাধ্যমে তা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের মিউটেশন নিয়ে গত মাসে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. হর্ষ বর্ধনও একই কথা জানিয়েছিলেন। তখনই তিনি বলেন, আইসিএমআর এবং ডিপার্টমেন্ট অব বায়োটেকনোলজি বৃহৎ আকারে একটি সমীক্ষা চালাচ্ছে। ভাইরাসের মিউটেশন সংক্রান্ত ওই সমীক্ষার ফলাফল মিলবে অক্টোবরে।

কী ভাবে টিকাকরণ?

বৈঠকে মোদী বলেন, দৈনিক কোভিড-১৯ (Covid-19) আক্রান্তের সংখ্যায় স্পষ্ট অবনমন ধরা পড়ছে। অন্যদিকে মৃত্যুহার কমে, ক্রমশ বেড়ে চলেছে সুস্থতার হার। গত তিন সপ্তাহ ধরে এই প্রবণতা বজায় রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে ভ্যাকসিন এক বার হাতে এসে গেলেই দ্রুত টিকাকরণের পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করা হবে এবং সেটা নির্বাচন পরিচালনা পদ্ধতির আদলেই করতে হবে।

আরও পড়তে পারেন: ভোট পরিচালনা পদ্ধতির আদলে দ্রুত টিকাকরণের সওয়াল করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

Continue Reading

Amazon

Advertisement
রাজ্য32 mins ago

জলীয় বাষ্পের প্রভাবে বাড়ল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, মঙ্গলবার পর্যন্ত হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গে

মল্লারপুরে বিক্ষোভ
বীরভূম54 mins ago

বীরভূমের মল্লারপুরে পুলিশ হেফাজতে নাবালকের মৃত্যু, জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

বিদেশ3 hours ago

দরিদ্র দেশগুলির জন্য কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন বিমা প্রকল্পের পরিকল্পনা ‘হু’-র

kolkata High Court
রাজ্য3 hours ago

কোভিডরোগীদের জন্য মারণ হতে পারে বাজির ধোঁয়া, ঠেকাতে ফের আদালতে যাওয়ার প্রস্তুতি

Mayawati
দেশ3 hours ago

আর রাখঢাক নয়, এ বার বিজেপিকে সরাসরি ভোট দেওয়ার আহ্বান মায়াবতীর

দেশ4 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৪৮,৬৪৮, সুস্থ ৫৭,৩৮৬

দেশ4 hours ago

স্বস্তি আরও বাড়িয়ে ভারতে সক্রিয় রোগী নামল ছ’লক্ষের নীচে, আপাতত চিন্তা দিল্লিকে নিয়ে

দেশ4 hours ago

কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় যুব সাধারণ সম্পাদক-সহ ৩ বিজেপি নেতা নিহত

দেশ4 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৪৮,৬৪৮, সুস্থ ৫৭,৩৮৬

containment kolkata
কলকাতা2 days ago

লকডাউন নিয়ে গুজবের বিরুদ্ধে পুলিশি পদক্ষেপ

বিনোদন3 days ago

সিবিআই গ্রেফতার করতে পারে, আশঙ্কায় তড়িঘড়ি আদালতের দ্বারস্থ সুশান্ত সিং রাজপুতের দুই দিদি

কলকাতা2 days ago

বিসর্জনের আগেই আগুন, পুড়ে ছাই সল্টলেকের দুর্গাপুজো মণ্ডপ

উঃ ২৪ পরগনা2 days ago

সক্কালেই ফোন, টাটা ক্যানসার হসপিটালে রক্ত দিয়ে এলেন ১৪ জন স্বেচ্ছাসেবী

coronavirus
রাজ্য3 days ago

দেড় মাস পর রাজ্যে কমল সক্রিয় রোগী, নতুন সংক্রমণ নামল ৪ হাজারের নীচে

বিনোদন3 days ago

চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন না সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, আরও সংকট, জানালেন চিকিৎসক

বিনোদন2 days ago

ভেন্টিলেশনেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, শুরু ডায়ালিসিস

কেনাকাটা

কেনাকাটা16 hours ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা3 weeks ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা4 weeks ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা4 weeks ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা1 month ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা1 month ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা1 month ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা1 month ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা1 month ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 month ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

নজরে