এই প্রথম কাশ্মীর সমস্যায় ‘মধ্যস্থতা’র প্রস্তাব দিল দক্ষিণ এশিয়ার কোনো দেশ!

0
প্রতীকী ছবি

কাঠমাণ্ডু: ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মীর সমস্যার সমাধান এবং সীমান্তে সন্ত্রাস প্রসঙ্গে আলোচনায় মধ্যস্থতার প্রস্তাব পেশ করল প্রতিবেশী রাষ্ট্র নেপাল। দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম কোনো দেশ হিসাবে নেপাল এই প্রস্তাবের কথা জানায় শনিবার।

নেপালের সরকারি সূত্র এ দিন জানায়, ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে দীর্ঘ দশক ধরে অব্যাহত কাশ্মীর সমস্যার নিরসনে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা নিতে চায় নেপাল। একই সঙ্গে সীমান্ত সন্ত্রাস রুখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েও আগ্রহী তারা।

গত ৫ আগস্ট জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ভারতীয় সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৩৭০ প্রত্যাহারের পরই দুই প্রতিবেশী দেশের সম্পর্ক নতুন মোড় নেয়। ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক বর্জন-সহ একাধিক কঠোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে পাকিস্তান। সম্প্রতি আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পও এ বিষয়ে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দেন বলে শোনা যায়। যদিও সেই প্রস্তাব খারিজ করে দেয় ভারত।

ক’দিনের মাথাতেই এ দিন নেপালের সরকারি সূত্রে জানানো হয়, “শান্তিপূর্ণ আলোচনা এবং বৈঠকই যে কোনো সমস্যার সমাধান করতে পারে। হতে পারে মতানৈক্য রয়েছে, দ্বন্দ্বও থাকতে পারে দৃষ্টিভঙ্গীতে। কিন্তু কথোপকথেনর মাধ্যমে সেই দ্বন্দ্ব মিটিয়ে ফেলা সম্ভব। প্রয়োজনে আমরা মধ্যস্থতার ভূমিকা পালন করতে পারি, কারণ নেপাল একটি স্বাধীন, নিরপেক্ষ ও শান্তিকামী দেশ”।

আরও পড়ুন: বুঝে নেবে ভারত-পাকিস্তান! ট্রাম্পকে হতাশ করল কেন্দ্র

সূত্রটি অবশ্য বলেছে, বিষয়গুলির সমাধানের আরও ভালো উপায় হল দুই দেশের মধ্যে আরও আলোচনার পরিবেশ তৈরি করা। ভারতীয় সাংবাদিকদের কাছে সূত্রটি জানায়, “আমরা সহায়ক হতে পারি, তবে তার থেকেও ভালো হয় যদি ওই দুই দেশ নিজেদের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার পথ ধরে”।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.