ওয়েবডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘ফার্স্ট লেডি’ মেলানিয়া ট্রাম্পের একটি পূর্ণাবয়ব মূর্তি দেখা গিয়েছে স্লোভেনিয়ায় তাঁর নিজের শহর সেভনিকার উপকণ্ঠে।

মার্কিন শিল্পী ব্র্যাড ডাওনি এক স্থানীয় শিল্পী আলেস জুপেভেককে ভাড়া করেন। তিনি ওই মূর্তিটিকে একটি গাছের গুঁড়ির মতো দেখতে বেদির উপর স্থাপনের নির্দেশ দেন।

যার ফলস্বরূপ একটি নীল কোট পরিহিত মিসেস ট্রাম্পের কাঠের মূর্তিটি এমন ভাবে দাঁড়িয়ে রয়েছে, যা দেখে মনে হবে তিনি আকাশের দিকে হাত তুলে অদূরবর্তী সাবা নদীর দিকে তাকিয়ে রয়েছেন।

মূর্তিটি যাঁরা দেখেছেন, তাঁদের মধ্যে থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া উঠে আসছে। যেমন কেউ বলছেন, এটা মোটেই মেলানিয়ার মতো দেখতে নয়। আবার কেউ বলছেন, এ ধরনের কিম্ভুতকিমাকার মূর্তি বসিয়ে ফার্স্ট লেডিকে অসম্মান করা হয়েছে।

কেউ কেউ আবার এমনও বলছেন, “মেলানিয়া আমাদের (স্লোভানিয়ার) গর্ব। তিনি নিজেকে আমেরিকার ফার্স্ট লেডির আসনে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। ফলে তাঁর প্রতি সম্মান জানাতে এটাও একটা উপায়”, ইত্যাদি।

অন্য দিকে শিল্পী ডাওনি জানিয়েছেন, তিনি রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে চান।তাঁর মতে, ২০১৬ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর থেকেই সেভনিকা পর্যটন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। কারণ, এই এলাকার পুরনো বাসিন্দা মেলানিয়া তখন থেকেই আমেরিকার ফার্স্ট লেডি।

প্রসঙ্গত, ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর থেকেই ওই এলাকায় মেলানিয়াকে নিয়ে আগ্রহের অন্ত নেই। চটি জুতো থেকে শুরু করে কেক পর্যন্ত তৈরি হয়েছে ‘মেলানিয়া ব্র্যান্ড’-এর উপর ভর করে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here