prostitution

ওয়েবডেস্ক: এ দেশে যাঁরা থাকেন, অনেকেই হয় তো পেয়েছেন এমন একটা এসএমএস- বন্ধু বা বান্ধবীদের সঙ্গে আলাপের সুযোগ, পাশাপাশি উপার্জনেরও সুবিধা! ঘুরিয়ে ফিরিয়ে এসকর্ট সার্ভিস বা বেশ্যাবৃত্তির কথা উল্লেখ করা হয় এ সব মেসেজে! যা বলাই বাহুল্য আইন অনুযায়ী বৈধ নয়!

কিন্তু নিউজিল্যান্ড সম্প্রতি বেশ ঘটা করেই এমন একটা পেশাদারি দক্ষতার কথা উল্লেখ করেছে। অস্ট্রেলিয়ান অ্যান্ড নিউজিল্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড ক্লাসিফিকেশন অব অকুপেশন তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, অভিবাসীরা যদি বেশ্যাবৃত্তির কাজ জানেন, তা হলে কর্মসংস্থানের সুযোগ পাওয়া যাবে। ওয়েবসাইটের অভিবাসনের তালিকায় পাঁচ নম্বরে এই কথা বলা হয়েছে। সঙ্গে বলা হয়েছে, পাশাপাশি সেকেন্ডারি এডুকেশনও বাধ্যতামূলক।

তবে ব্যাপারটা এতটাও সহজ নয়। কেন না, অস্ট্রেলিয়ান অ্যান্ড নিউজিল্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড ক্লাসিফিকেশন অব অকুপেশন তাদের ওয়েবসাইটে জানাচ্ছে যে এই কাজের দৌলতে ও দেশে অভিবাসনের সুযোগ পেতে হলে অন্তত পক্ষে বছর তিনেক বেশ্যাবৃত্তির অভিজ্ঞতা থাকা চাই-ই চাই! শুধু তাই নয়, পাশাপাশি উপার্জন হতে হবে ঘণ্টায় অন্তত ২০০০ টাকা।

অবশ্য অস্ট্রেলিয়ান অ্যান্ড নিউজিল্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড ক্লাসিফিকেশন অব অকুপেশন এ কথা উল্লেখ করলেও ধন্দ থেকেই যাচ্ছে। বেশ্যাবৃত্তির অভিজ্ঞতা থাকলে যে সেই কাজকে হাতিয়ার করে ও দেশে অভিবাসনের সুযোগ পাওয়া যাবে, এতটাও সহজ নয় ব্যাপারটা! কেন না ও দেশের আইন বেশ্যাবৃত্তিকে উপার্জনের মাধ্যম করে ভিসা পাওয়ার পরিপন্থী। মানে যে যে ক্ষেত্রে কাজ পাওয়ার সুযোগ রয়েছে ওদেশে, তার তালিকায় যুক্ত হয়েছে বেশ্যাবৃত্তিও। এই যা!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here