ওয়েবডেস্ক : খেলাধুলাকে আরও আকর্ষণীয় আর জেল্লাদার করে তুলতেই নতুন নতুন বিষয়ের উদ্ভাবন করা হচ্ছে। জুড়ে দেওয়া হচ্ছে নানা কর্মকাণ্ডের। তা সে কার্যক্ষেত্রেই হোক বা আলংকারিকই হোক। ঠিক যেমন ভাবে ক্রিকেট মাঠে আনা হয়েছে চেয়ার গার্লদের। কিন্তু উলটপূরাণ এমন কি ভাবা যায়? একটা রেসের মাঠ থেকে এমন আলংকারিক কাজের জন্য বহাল থাকা গ্রিড গার্লদের তুলে নেওয়া হল। রেসের নাম ফর্মুলা ওয়ান।

এই রেস আয়োজনকারী সংস্থা মনে করছে, এই রেসের বিষয়বস্তুর সঙ্গে এই গ্রিড গার্লরা একেবারেই বেমানান। ব্র্যান্ড ভ্যালুর সঙ্গে এই নিয়ম ঠিক মানান সইও নয়। এমনকি আধুনিক সময়ের সামাজিক নিয়মকানুনের সঙ্গেও ব্যাপারটা ঠিক খাপ খায় না। এমন একটি সিরিয়াসধর্মী খেলার সঙ্গে এই রকম আয়োজন বাহুল্য। তাই অবাক হবেন না। এখন থেকে আর হাতে ‘ড্রাইভার্স ট্রাক নম্বর স্ট্যান্ড’ নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাবে না গ্রিড গার্লদের। এমনকি দেখা যাবে না ‘প্পডিয়াম গার্ল’দেরও।

যদিও মোটর স্পোর্টের দুনিয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নতুন নয়। ২০১৫ সালে লি ম্যান মোটর রেসিং স্পোর্টস থেকে তুলে দেওয়া হয় গ্রিড গার্ল উপস্থিতি। ২০১৫ সালেই এফ ওয়ান মোটর রেস থেকেও গ্রিড গার্লদের সরিয়ে দেওয়া হয়। সেই রেসে গ্রিড গার্লদের পরিবর্তে বহাল করা হয় পুরুষদের। তাঁদের শর্ট জিনস পরিয়ে দাঁড় করানো হয়। এর পর যা ঘটে তা হল, সিবেস্টিয়ান ভেটেলের মতো খেলোয়ারও দারুণ অবাক হয়ে যান মেয়েদের দেখতে না পেয়ে।

যাইহোক, গ্রিড গার্লদের ছাড়াই এই মরশুমের প্রথম রেস অস্ট্রেলিয়ান গ্র্যান্ড প্রিক্স  আয়োজন করা হয়েছে মেলবোর্নে। তারিখ ২৫ মার্চ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here