ওয়েবডেস্ক: কর ফাঁকি দিতে প্রতারণা করেছিলেন। শাস্তিস্বরূপ মিলেছে ৬ বছরের কারাদণ্ড। কিন্তু আসামির দাবি, তাঁর সাজার সময়কাল কমিয়ে আনা হোক। কারণ হিসেবে তিনি বলছেন, স্থূলকায় হওয়ায় তাঁর আয়ু নাকি সুস্থ মানুষের গড় আয়ুর থেকে বেশ খানিকটা কম।

স্টিফেন ডোনাল্ডসন নামের ৭২ বছরের ফ্লোরিডাবাসী এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে ১ কোটি ডলারের জালিয়াতির অভিযোগ ছিল। দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর আদালত তাঁকে ৬ বছরের কারাদণ্ড দেয়। আদালতের দেওয়া শাস্তির পরিপ্রেক্ষিতে গত সোমবার ডোনাল্ডসনের আইনজীবী কারটিস ফ্যাল্গ্যাটার দাবি করেন, তাঁর মক্কেলের শাস্তির সময়কাল কমাতে হবে।

ওই আইনজীবী আদালতকে জানিয়েছেন, ২৭৩ পাউন্ড ওজনের এবং ৫ ফুট ৯ ইঞ্চি উচ্চতার এক ব্যক্তির পক্ষে এই বয়সে ৬ বছর ৪ মাসের কারাবাস সম্ভব নয়। আদালতের ঘোষিত সাজার সময় নাকি স্টিফেনের বাকি জীবনের ৬১ শতাংশের সমান।

ওই মামলায় স্টিফেন ডোনাল্ডসনের পাশাপাশি দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন ৭০ বছরের আরেক ফ্লোরিডাবাসী ডুয়েন ক্রিথফিল্ড। তাঁর সাজার সময়কাল ৪ বছর ৬ মাস। সাজা মকুব অথবা লাঘবের জন্য দুজনেই আবেদন করতে পারবেন উচ্চ আদালতে। আবেদন করা পর্যন্ত গ্রেফতার করা যাবে না, সে রকমই নির্দেশ আদালতের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here