রাশিয়ায় নগ্ন ‘ডেভিড’কে পোশাক পরানো নিয়ে হবে ভোট

0

মাইকেলএঞ্জেলোর বিশ্ববিখ্যাত ভাস্কর্য ‘ডেভিড’-এর একটি প্রতিরূপ বসানো হয়েছে রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গ শহরের কেন্দ্রস্থলে। সেই নগ্ন ‘ডেভিড’কে নিয়ে উঠেছে শোরগোল। তাই এই ‘ডেভিড’কে পোশাক পরানো হবে কিনা তা-ই নিয়ে ভোট নেওয়া হবে।

এই নকল ‘ডেভিড’ প্লাস্টিকের তৈরি, এর উচ্চতা ১৬ ফুট। সেন্ট পিটার্সবার্গে একটি ভাস্কর্য প্রদর্শনী উপলক্ষে এটি স্থাপন করা হয়েছে।  

রেনেসাঁ যুগের বিখ্যাত ভাস্কর ইতালির মাইকেলএঞ্জেলোর অন্যতম শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি নগ্ন ‘ডেভিড’। তাঁরই প্রতিরূপ নিয়ে আপত্তি তুলেছেন এক মহিলা। তাঁর অভিযোগ, শহরের কেন্দ্রস্থলে এমন এক জায়গায় এই বিবস্ত্র লোকের মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে, যেখানে কাছাকাছি রয়েছে একটি গির্জা, আর একটি স্কুল। শিশু অধিকার সংক্রান্ত অধিকর্তার কাছে পাঠানো এক চিঠিতে তিনি বলেছেন, “এই দানবটির উপস্থিতি শহরের ঐতিহাসিক চেহারা নষ্ট করেছে। তা ছাড়া শিশুদের মনের উপর বিরূপ প্রভাব পড়ছে।”

মহিলার আপত্তির কথা জেনে শহরের আধিকারিকরা তাঁকে এই বলে বোঝানোর চেষ্টা করেন যে, রাশিয়ার সাবেক রাজধানী বলে সেন্ট পিটার্সবার্গে এ ধরনের অনেক স্থাপত্য আছে এবং শিশু-সহ সব নগরবাসীই এ ধরনের নগ্ন মূর্তি দেখতে অভ্যস্ত। কাছাকাছি যে স্কুলের কথা মহিলাটি বলেছেন সেই স্কুলের কর্মকর্তারাও মহিলার আপত্তির মধ্যে কোনও সারবত্তা দেখেননি। কিন্তু ভবী ভোলবার নয়। তাঁর কথা, “এখানে ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা রয়েছে। তারা এই নগ্ন পুরুষের মূর্তি দেখছে। এটা কি খুব স্বাভাবিক ব্যাপার ?”

এখন প্রদর্শনীর উদ্যোক্তারা ‘ড্রেস ডেভিড’ নামে এক উদ্যোগ নিয়েছেন। নগ্ন মূর্তিতে পোশাক পরানোর ব্যাপারে শহরবাসীর মতামত নেবেন তাঁরা। জানতে চাওয়া হবে, এই ‘ডেভিড’কে কি পোশাক পরানো হবে নাকি যেমন আছে তেমনই রাখা হবে। ভোট চলবে অনলাইনে, আগামী ১৬ থেকে ২৩ আগস্ট পর্যন্ত। তার পর ভোটের ফল দেখে ব্যবস্থা।

ছবি: সৌজন্যে বিবিসি নিউজ   

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন